শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৯ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৮ নভেম্বর, ২০২০ ২৩:২৩

টিআই-এর ‘গ্লোবাল করাপশন ব্যারোমিটার-এশিয়া ২০২০’

এক বছরে ২৪ শতাংশ মানুষ অন্তত একবার ঘুষ দিয়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশে গত ১২ মাসে যাঁরা সরকারি সেবা নিয়েছেন, তাঁদের মধ্যে ২৪ শতাংশ মানুষ একবারের জন্য হলেও ঘুষ দিয়েছেন। আন্তর্জাতিক দুর্নীতিবিরোধী সংস্থা ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের ‘গ্লোবাল করাপশন ব্যারোমিটার-এশিয়া ২০২০’ শীর্ষক প্রতিবেদনে এ কথা উল্লেখ করা হয়েছে। টিআই গত মঙ্গলবার নিজেদের ওয়েবসাইটে এই প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। মূলত এশিয়া অঞ্চলের ১৭টি দেশের ওপর চালানো জরিপ থেকে পাওয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে। বাংলাদেশসহ এশিয়ার ১৭ দেশের ২০ হাজার নাগরিকের ওপর এই জরিপ চালানো হয়। ২০১৯ সালের মার্চ থেকে ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাস পর্যন্ত এই জরিপ পরিচালিত হয়। প্রতিবেদনে বাংলাদেশের বিষয়ে বলা হয়েছে, দেশে বিদ্যমান সরকারি সেবাগুলোর মধ্যে পুলিশের কাছ থেকে সেবা নিতে গিয়ে সবচেয়ে বেশি ৩৭ শতাংশ ঘুষ দিতে হয় নাগরিকদের। পাশাপাশি স্থানীয় সরকারের কর্মকর্তাদের ঘুষ দিতে হয় ৩৫ শতাংশ। জরিপে অংশগ্রহণকারীদের ৩৮ শতাংশ মনে করেন, দুর্নীতি বাড়ছে। আর ২৮ শতাংশ মনে করেন, দুর্নীতি আগের মতোই আছে। সার্বিকভাবে সরকারি দুর্নীতিকে বড় সমস্যা বলে মনে করেন, এমন মানুষের সংখ্যার দিক থেকে সবার ওপরে আছে ইন্দোনেশিয়া। দেশটির প্রায় ৯২ শতাংশ মানুষ এমনটা মনে করেন। তাইওয়ানের ৯১ শতাংশ এবং মালদ্বীপের ৯০ শতাংশ মানুষ মনে করেন, তাঁদের দেশে সরকারি দুর্নীতি অন্যতম বড় সমস্যা। ভারতে এটি ৮৯ শতাংশ। তুলনামূলক নিজ দেশে সরকারি দুর্নীতিকে বড় সমস্যা মনে করেন না কম্বোডিয়া ও মিয়ানমারের মানুষ।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, যদিও জনসাধারণ সরকারি দুর্নীতিকে বড় সমস্যা বলে মনে করছে, তবে একই সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সরকার এসব দুর্নীতির বিরুদ্ধে যেসব ব্যবস্থা নিচ্ছে, তাতে তাদের সমর্থনও রয়েছে। জরিপে অংশগ্রহণকারীদের ৬১ শতাংশ মনে করেন, তাঁদের সরকার দুর্নীতি সামাল দিতে ভালো পদক্ষেপ গ্রহণ করছে। আবার জরিপে এ-ও দেখা গেছে যে সার্বিকভাবে ৩২ শতাংশ নাগরিক মনে করেন, বেশির ভাগ বা সব সংসদ সদস্যই দুর্নীতিতে জড়িত থাকেন।


আপনার মন্তব্য