শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২২ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:৩০

সোয়া কোটি অবৈধ ইমিগ্র্যান্টকে বৈধতার প্রস্তাব কংগ্রেসের

বাইডেনের নির্বাহী আদেশে বাতিল হলো ট্রাম্পের অ-আমেরিকান ১৭ বিধি

লাবলু আনসার, যুক্তরাষ্ট্র

সোয়া কোটি অবৈধ ইমিগ্র্যান্টকে বৈধতার প্রস্তাব কংগ্রেসের

ডোনাল্ড ট্রাম্পের অপশাসনে ক্ষত-বিক্ষত আমেরিকাকে ঘুরে দাঁড়াতে ক্ষমতা গ্রহণের পাঁচ ঘণ্টার মধ্যেই অর্থাৎ ২০ জানুয়ারি বুধবার সন্ধ্যায় ট্রাম্পের বেশ কটি অ-আমেরিকান বিধি বাতিলে ১৭টি নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর দিয়েছেন ৪৬তম প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

এর অন্যতম হচ্ছে মুসলিম অধ্যুষিত ৭টি দেশের নাগরিকের ভিসা নিষিদ্ধ বিধি বাতিল, ড্যাকা পুনর্বহাল, ফেডারেল ভবন, গণপরিবহন, আন্তস্টেট ভ্রমণকারীদের মাস্ক বাধ্যতামূলক অন্তত ১০০ দিন এবং করোনার সংক্রমণ রোধ ও টিকা প্রদানের কর্মসূচি জোরদার, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যাবর্তন এবং প্যারিস চুক্তিতে প্রত্যাবর্তন ইত্যাদি আদেশ। এ ছাড়া বহুল প্রত্যাশিত অবৈধ ইমিগ্র্যান্টদের বৈধতা প্রদান সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবও পাঠিয়েছেন কংগ্রেসে। এ সময় সাংবাদিকদের প্রশ্ন নেননি। তিনি বলেন, ‘অপেক্ষা করুন ব্রিফিং দেওয়া হবে।’ এমন কথা বলেই বাইডেন ভিতরে চলে যান। তবে ট্রাম্পের মতো উত্তেজিত হননি কিংবা আক্রমণাত্মক কথাও বলেননি। এদিকে ইতিহাস রচনা করে শপথ গ্রহণের পরই ইউএস সিনেটে সভাপতিত্ব করেন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস। তাঁর সভাপতিত্বে বাইডেন  ক্যাবিনেটে ইন্টেলিজেন্স ডাইরেক্টর হিসেবে এভরিল হেইন্সকে অনুমোদন দিল ইউএস সিনেট। একই দিন কমলার নেতৃত্বে শপথ গ্রহণ করেন ক্যালিফোর্নিয়া এবং জর্জিয়া থেকে নির্বাচিত তিন ডেমোক্র্যাট সিনেটর। এর মধ্য দিয়ে সিনেটে ডেমোক্র্যাটদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিত হলো। উল্লেখ্য, হাউসেও ডেমোক্র্যাটরা সংখ্যাগরিষ্ঠ। তাই নির্বাচনী অঙ্গীকার পূরণের পাশাপাশি ট্রাম্পের গণবিরোধী ও মানবতাবিরোধী পদক্ষেপসমূহ পাল্টাতেও তেমন বেগ পেতে হবে না বাইডেনকে। টানটান উত্তেজনার মধ্যে শপথ গ্রহণ এবং ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফ্লোরিডায় গমনের মধ্য দিয়ে আমেরিকায় স্বস্তির বাতাস বইতে শুরু করেছে। ট্রাম্পের লেলিয়ে দেওয়া চরমপন্থিদেরও তৎপর হতে দেখা যায়নি কোথাও। তবে ক্যাপিটল হিলসহ সারা আমেরিকাতেই কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা বহাল রাখা হয়েছে যে কোনো ধরনের পরিস্থিতি শক্তহাতে মোকাবিলার জন্যে।

 কারণ শপথ অনুষ্ঠানে অংশ না নিয়ে হোয়াইট হাউস ছেড়ে ফ্লোরিডায় রওনা দেওয়ার আগে ট্রাম্প বলেছেন যে, এটি তার শেষ যাত্রা নয়। যে কোনো উপায় অথবা পরিচয়ে আবারও ফিরবেন হোয়াইট হাউসে। এমন হুঙ্কারের মধ্যে নতুন ষড়যন্ত্রের গন্ধ খুঁজছেন গোয়েন্দারা।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর