শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৩৩

নির্ভয়ে টিকা নিন

-ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ

নিজস্ব প্রতিবেদক

নির্ভয়ে টিকা নিন

প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত চিকিৎসক ও ইউজিসি অধ্যাপক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ বলেছেন, করোনাভাইরাস নির্মূলে সরকার দেশব্যাপী গণটিকাদান শুরু করেছে। অক্সফোর্ড অ্যাস্ট্রাজেনেকার আবিষ্কৃত ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে উৎপাদিত এই টিকার প্রযুক্তি পরীক্ষিত ও প্রমাণিত। তাই টিকার পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নিয়ে ভয় কিংবা দুশ্চিন্তার কিছু নেই। নির্ভয়ে, নিশ্চিন্তে টিকা নিন। নিজে সুস্থ থাকুন, পরিবারকে নিরাপদ রাখুন, দেশকে করোনামুক্ত করুন। গতকাল তিনি বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, সব টিকার কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকে। জ্বর, গায়ে ব্যথা, মাথাব্যথা, বমিবমি ভাব, গায়ে অ্যালার্জি ওঠা, টিকা দেওয়ার জায়গা হালকা ফুলে যেতে পারে। এটা সাময়িক, দু-তিন দিনেই টিকা গ্রহণকারী সুস্থ হয়ে যাবেন। বড় ধরনের পার্শ¦প্রতিক্রিয়া হওয়ার কারণ নেই। তাই ভয় না পেয়ে নিঃসংকোচে টিকা নিতে পারেন। এখন ৪০ বছর পার হলেই টিকা নিতে পারবেন এমন সিদ্ধান্ত জানিয়েছে সরকার। তাই টিকাকেন্দ্রগুলোতে বেড়েছে টিকাগ্রহীতার সংখ্যা। টিকা দিলেই যে আর কখনো করোনা হবে না, তা ভাবার কারণ নেই। তাই স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে। ১৮ বছরের কম বয়সী শিশুরা টিকা পাবে না। গর্ভবতী নারী, মুমূর্ষু রোগী, প্রচ  অ্যালার্জির সমস্যা আছে এমন ব্যক্তিরা টিকা কর্মসূচির বাইরে থাকবে। বিভিন্ন কারণে শারীরিক প্রতিরোধ ক্ষমতা কম, যেমন ক্যান্সারের রোগী যারা কেমোথেরাপি কিংবা রেডিওথেরাপি নিচ্ছেন তাদের আপাতত টিকা দেওয়া হবে না। সব মিলিয়ে প্রায় ৭ কোটি মানুষ টিকা পাবে না। তাই শিশু ও রোগীদের খেয়াল রাখতে সতর্ক থাকতে হবে। অধ্যাপক ডা. এ বি এম আবদুল্লাহ আরও বলেন, টিকা দিলেও তার কার্যকারিতা কতদিন থাকবে সে বিষয়ে এখনো গবেষণা হয়নি। তাই এই এন্টিবডি শরীরে কতদিন কার্যকর থাকবে তা চিন্তার বিষয়। এ জন্য বারবার হাত ধুতে হবে, বাইরে বের হলে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে এবং শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা করতে হবে। সতর্ক থাকলে সুস্থ থাকবেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর