শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২০ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০১:৪৩

মার্কিন কংগ্রেসে মাতৃভাষার জন্য বাঙালিদের রক্তদানের অবিস্মরণীয় তথ্য

লাবলু আনসার, যুক্তরাষ্ট্র

মার্কিন কংগ্রেসে মাতৃভাষার জন্য বাঙালিদের রক্তদানের অবিস্মরণীয় তথ্য

বিগত আট বছরের মতো এবারও কংগ্রেসে মায়ের ভাষার জন্য বাঙালিদের অকৃপণভাবে রক্তদানের অবিস্মরণীয় ঘটনাবলির আলোকে ‘২১ ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ যুক্তরাষ্ট্রেও যথাযথ মর্যাদায় পালনের আহ্বানে কংগ্রেসওম্যান গ্রেস মেং একটি রেজুলেশন উপস্থাপন করেছেন। ১৮ ফেব্রুয়ারি বৃহস্পতিবার উত্থাপিত এ রেজুলেশনে সারা বিশ্বে ৬ হাজার ভাষার মধ্যে ২ হাজার ২৭৯টি বিলুপ্তির প্রচন্ড ঝুঁকিতে রয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়। একই সঙ্গে তথ্য-উপাত্তের উদ্ধৃতি দিয়ে উল্লেখ করা হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রেও ৩৮১টি ভাষার মধ্যে ১৪৫টি বিলুপ্তির প্রচন্ড ঝুঁকিতে রয়েছে। এসব ভাষাকে রক্ষার জন্যই ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর প্রথমে ইউনেস্কো এবং ২০০২ সালে জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে গৃহীত সিদ্ধান্তে ২১ ফেব্রুয়ারিকে ‘আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ হিসেবে ঘোষণা দেওয়া হয়। অর্থাৎ জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রসমূহকেও দিনটি ভাবগম্ভীর পরিবেশে উদ্্যাপনের আহ্বান রয়েছে। নিউইয়র্কের ষষ্ঠ কংগ্রেশনাল ডিস্ট্রিক্টে (কুইন্স, ফ্লাশিং) ২০১১ সাল থেকেই ডেমোক্র্যাটিক পার্টির টিকিটে বিজয়ী হয়ে আসা গ্রেস মেং কংগ্রেশনাল বাংলাদেশ ককাসেরও প্রভাবশালী সদস্য হিসেবে প্রবাসী বাংলাদেশিদের অধিকার ও মর্যাদার প্রশ্নে সোচ্চার। তবে ২১ ফেব্রুয়ারিকে যথাযথ মর্যাদায় উদ্‌যাপনের এ রেজুলেশনের জন্য তাকে উদ্বুদ্ধ করেছে মাতৃভাষার জন্য বাঙালিদের রক্তদানের ঘটনা। তার নির্বাচনী এলাকার আশপাশেরও বহু ভাষা বিলুপ্তির আশঙ্কা থেকেও তিনি এ রেজুলেশনে উদ্বুদ্ধ হয়েছেন। এ প্রসঙ্গে বৃহস্পতিবার প্রদত্ত এক বিবৃতিতে গ্রেস মেং বলেন, ‘আমার সৌভাগ্য যে মাতৃভাষার জন্য প্রাণ উৎসর্গকারী বাংলাদেশিদের বড় একটি সংখ্যা আমার নির্বাচনী এলাকায় বাস করছেন। তারা কঠোর পরিশ্রমী এবং তাদের সন্তানরাও অত্যন্ত মেধাবী হিসেবে বহুজাতিক এই দেশে নিজ নিজ অবস্থান সংহত করতে সক্ষম হয়েছেন। আমি ব্যক্তিগতভাবে প্রতিবছরই একুশে ফেব্রুয়ারি উদ্‌যাপনে নিউইয়র্কে গৃহীত কর্মসূচিতে অংশ নিই। এবারও ভার্চুয়ালে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের অনুষ্ঠানে থাকার ইচ্ছা রয়েছে।’


আপনার মন্তব্য