শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৬ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ মে, ২০২১ ২৩:৩৭

হাসপাতালে ভর্তি বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য

কলকাতা প্রতিনিধি

হাসপাতালে ভর্তি বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য
Google News

শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি করা হলো পশ্চিমবঙ্গের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও সিপিআইএম নেতা বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে। গতকাল সকালে দক্ষিণ কলকাতার বেসরকারি হাসপাতাল উডল্যান্ডসে ভর্তি করা হয় তাঁকে। সম্প্রতি করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৭৭ বছর বয়সী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। হাসপাতালে ভর্তি হওয়া নিয়ে প্রবল অনীহার কারণেই দক্ষিণ কলকাতার পাম এভিনিউয়ের বাড়িতেই হোম আইসোলেশনে ছিলেন তিনি। বাড়িতেই অক্সিজেন সাপোর্টে রাখা হয়েছে তাকে। কিন্তু সোমবার রাত থেকেই ধীরে ধীরে অবস্থার অবনতি হতে থাকে। গতকাল সকালে হঠাৎ করেই তার শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যাওয়ায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এদিন সকালে তার অক্সিজেন সম্পৃক্ততা ৯০-এর নিচে নেমে যায়। এর পরই তাকে বাড়িতে না রেখে হাসপাতালে স্থানান্তরিত করার সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকরা। ডা. সৌতিক পান্ডার তত্ত্বাবধানে আইসিইউ বিভাগে ভর্তি আছেন বুদ্ধদেব। সাবেক মুখ্যমন্ত্রীকে চিকিৎসার জন্য গঠন করা হয়েছে মেডিকেল বোর্ড। ওই বোর্ডে রয়েছেন ডা. সপ্তর্ষি বসু। ২০০০ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। প্রায় এক দশক ধরে ‘ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি ডিজঅর্ডার’ (সিওপিডি) জনিত সমস্যায় ভুগছেন তিনি। শ্বাসকষ্ট সমস্যা ও রক্তে অক্সিজেনের মাত্রা কমে যাওয়ার কারণে শেষবার ২০২০ সালের ডিসেম্বরে হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। ওই সময় তাকে ভেন্টিলেটরেও রাখা হয়। শারীরিক সমস্যার কারণেই সাম্প্রতিক কালে তার চলাফেরাতেও বেশ কিছু সীমাবদ্ধতা ছিল। বুদ্ধদেবের সঙ্গে গত সপ্তাহেই করোনায় আক্রান্ত হন তার স্ত্রী মীরা ভট্টাচার্য। এরপর শ্বাসকষ্টের সমস্যা নিয়ে ১৮ মে ওই হাসপাতালেই ভর্তি করা হয় মীরাকে। সোমবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান তিনি। আগামী এক সপ্তাহ তাকে বাড়িতেই হোম আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।