বুধবার, ১১ আগস্ট, ২০২১ ০০:০০ টা

সর্বাধিক মৃত্যু হচ্ছে আগস্টেই

করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ২৬৪ মৃত্যু, শনাক্ত ১১ হাজার ১৬৪

নিজস্ব প্রতিবেদক

সর্বাধিক মৃত্যু হচ্ছে আগস্টেই

করোনাভাইরাস সংক্রমণে সর্বাধিক মৃত্যু হচ্ছে চলতি আগস্টেই। নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার টানা ১১ দিন ধরে কমলেও টানা ১৭ দিন ২ শতাধিক মৃত্যুর খবর দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর। গতকাল সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ গেছে ২৬৪ জনের। এতে মোট মৃত্যু ছাড়িয়ে গেছে ২৩ হাজার। আগস্টের ১০ দিনেই মারা গেছেন ২ হাজার ৪৭৬। গত জুলাইয়ের তুলনায় আগস্টে এসে গড় মৃত্যু বেড়েছে দৈনিক ৪৮। অথচ, গত বছর জুলাইয়ে মৃত্যু বাড়লেও আগস্ট থেকে কমতে শুরু করেছিল।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্যে দেখা গেছে, জুন থেকে টানা বাড়ছে মৃত্যু। মে মাসে মোট মারা গিয়েছিলেন ১ হাজার ১৬৯ জন। দৈনিক গড় মৃত্যু ছিল ৩৭.৭১। জুনে গড় মৃত্যু বেড়ে দাঁড়ায় ৬২.৮০। জুলাইয়ে তিনগুণ বেড়ে হয় ১৯৯.৪২। আগস্টের ১০ দিনে গড়ে প্রতিদিন মারা গেছেন ২৪৭.৬০। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ২৬৪ জন করে মারা গেছেন দুই দিন। মহামারীর দেড় বছরের মধ্যে দৈনিক সর্বাধিক প্রাণহানি হচ্ছে চলতি আগস্টে। গত বছর জুলাইয়ে মৃত্যু বেড়ে গেলেও আগস্ট থেকে কমতে শুরু করেছিল। চলতি বছর আগস্টে এসে মৃত্যু আরও বেড়েছে।

এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৭ হাজার ৪২৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১১ হাজার ১৬৪ জনের দেহে সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২৩.৫৪ শতাংশ। গত ৩১ জুলাই থেকে টানা কমছে শনাক্তের হার। গতকাল  পর্যন্ত দেশে মোট ১৩ লাখ ৭৬ হাজার ৩২২ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে মারা গেছেন ২৩ হাজার ১৬১। সুস্থ হয়েছেন ১২ লাখ ৩৪ হাজার ৭৬২। দেশে গত ৮ মে করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট শনাক্তের পর জুন থেকে সীমান্তের বিভাগ খুলনা, রাজশাহী, রংপুর ও চট্টগ্রামে সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়ে গিয়েছিল। জুলাইয়ের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে অন্য বিভাগগুলোয় মৃত্যু ধীরে ধীরে কমতে শুরু করলেও বাড়তে থাকে ঢাকায়। আগস্টের ১০ দিনের মধ্যে শুধু ৬ তারিখ সর্বোচ্চ ৭৫ জনের মৃত্যু হয় চট্টগ্রাম বিভাগে। বাকি নয় দিনই সর্বোচ্চ মৃত্যু হয় ঢাকা বিভাগে। এর মধ্যে ৭ ও ৮ আগস্ট ঢাকা বিভাগেই শতাধিক মৃত্যুর খবর দেওয়া হয়। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত ২৬৪ জনের মধ্যে ৯২ জন ঢাকায়, ৬০ জন চট্টগ্রামে, ২৭ জন খুলনায়, ২৫ জন রাজশাহীতে, ১৮ জন ময়মনসিংহে, ১৭ জন সিলেটে, ১৪ জন রংপুরে ও ১১ জন বরিশাল বিভাগে মারা গেছেন। এর মধ্যে ২৫৪ জন হাসপাতালে ও ১০ জন বাড়িতে মারা গেছেন। মৃতদের মধ্যে ১৫৪ জন ছিলেন পুরুষ ও ১১০ জন নারী। বয়স বিবেচনায় মৃতদের মধ্যে ১৫০ জন ছিলেন ষাটোর্ধ্ব, ৬৬ জন পঞ্চাশোর্ধ্ব, ২৫ জন চল্লিশোর্ধ্ব, ১৬ জন ত্রিশোর্ধ্ব, ছয়জন বিশোর্ধ্ব ও একজনের বয়স ছিল ১১ বছরের কম। নমুনা পরীক্ষায় গত ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ শনাক্তের হার ছিল চট্টগ্রাম বিভাগে ২৯.৬৪ শতাংশ। এ ছাড়া সিলেট বিভাগে ২৮.৭২ শতাংশ, বরিশাল বিভাগে ২৬.২৯ শতাংশ, খুলনা বিভাগে ২৪.৫৯ শতাংশ, রংপুর বিভাগে ২২.৩৭ শতাংশ, ঢাকা বিভাগে ২১.৬৮ শতাংশ, ময়মনসিংহ বিভাগে ১৮.৯৫ শতাংশ ও রাজশাহী বিভাগে ১৮.১১ শতাংশ ছিল শনাক্তের হার।

সর্বশেষ খবর