শুক্রবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা

হাফ ভাড়ায় রাজি নয় মালিকপক্ষ

শিগগিরই যৌক্তিক সিদ্ধান্ত : কাদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

রাজধানীর বনানীতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) ও অংশীজনদের মধ্যকার বৈঠক কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়াই শেষ হয়েছে। গতকাল বিকালে বিআরটিএর প্রধান কার্যালয়ের ওই বৈঠক দেড় ঘণ্টা চলে। বৈঠক শেষে মালিকপক্ষ থেকে জানানো হয় তারা বাসে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস চালুর বিষয়ে আপাতত রাজি নন।

অন্যদিকে গতকাল সকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনের সেমিনার হলে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির দ্বিবার্ষিক সাধারণ সভা ও কাউন্সিল অধিবেশনে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, গণপরিবহনে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার বিষয়ে শিগগিরই যৌক্তিক সিদ্ধান্ত আসবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের (বিআরটিসি) বাসে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া চালুর বিষয়ে আমরা চিন্তাভাবনা করছি। বেসরকারি বাসেও শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়া চালুর বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের কাছে সহযোগিতা কামনা করব।’ তিনি বলেন, ‘কিছুদিন থেকে শিক্ষার্থীরা আন্দোলনে নেমেছেন। তারা হাফ ভাড়ার দাবিতে কর্মসূচি পালন করছেন। আমি এ বিষয়ে বলতে চাই, দুনিয়ার বিভিন্ন দেশে ছাত্ররা কনসেশন ভোগ করে থাকেন। আমরাও পাকিস্তান আমলে যখন ছাত্র ছিলাম এ কনসেশন পেয়েছি- এটা হলো সত্য কথা।’ মন্ত্রী বলেন, ‘শনিবার (কাল) বিআরটিএর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বাস মালিকদের সঙ্গে বসে এ বিষয়ে যৌক্তিক সিদ্ধান্ত নেবেন বলে  আমি আশা রাখি।’ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির অনুষ্ঠানে সংগঠনের সভাপতি মসিউর রহমান রাঙ্গা, মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সভাপতি শাজাহান খান, সাধারণ সম্পাদক ওসমান গনিসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা বাস ও ট্রাক মালিকরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে বিআরটিএ ও অংশীজনদের মধ্যে গতকাল বিকালের ওই বৈঠক শুরুর দেড় ঘণ্টার মধ্যেই শেষ হয়ে যায়। বৈঠকে বাস মালিকদের পক্ষ থেকে জানানো হয়- বেসরকারি বাসে সরকার ভর্তুকি দিচ্ছে না। যানজটে সড়কে ট্রিপ কমে গেছে। টায়ারসহ বাসের বিভিন্ন যন্ত্রাংশের দাম বেড়ে গেছে। এ অবস্থায় ঢাকাসহ বিভিন্ন মহানগরে শিক্ষার্থীদের জন্য হাফ পাস চালু করা হলে মালিকদের লোকসান গুনতে হবে। এ পরিস্থিতিতে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির নেতারা নিজেদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা করে বাসে হাফ পাসের বিষয়ে তাদের একটি প্রস্তাব সরকারের কাছে তুলে ধরবে।

বৈঠক শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের এ তথ্য জানান সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলাম। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে ঢাকা মহানগরীতে শিক্ষার্থীরা বাসে হাফ ভাড়ার দাবিতে আন্দোলন করছেন। তাদের দাবির প্রতি গুরুত্ব দিয়ে সরকার এ সমস্যা সমাধানে আন্তরিক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তিনি আরও বলেন, ‘সরকার শিক্ষার্থীদের দাবির প্রতি বিশেষভাবে গুরুত্ব দিচ্ছে বলেই আজ আমরা বৈঠক করেছি। বেসরকারি বাসে অর্ধেক ভাড়ার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত আমরা চাপিয়ে দিতে পারি না। কারণ বাসে কত শতাংশ ভাড়া ছাড় দিতে হবে আমরা আজ সে সিদ্ধান্ত দেওয়ার পর বাস মালিকরা ধর্মঘট ডাকতে পারেন। তাতে জনদুর্ভোগ বাড়বে।’

নজরুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা পরিবহন মালিক সমিতিকে নিজেদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা করে যুক্তিসংগত প্রস্তাব দেওয়ার জন্য বলেছি। তারা দ্রুত সময়ের মধ্যে এ প্রস্তাব আমাদের কাছে দেবেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের প্রতিনিধিকে বলা হয়েছে তারাও তাদের একটি প্রস্তাব আমাদের কাছে দেবেন।

বিআরটিসি তাদের বাসে শিক্ষার্থীদের জন্য সুবিধা দেবে। কারণ তাদের নতুন বাস যুক্ত হয়েছে। এ বিষয়ে বিআরটিসি প্রতিনিধি বৈঠকে সম্মত হয়েছেন। এ নিয়ে শুক্রবার (আজ) সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী বক্তব্য দেবেন বলে আশা করা হচ্ছে।’

সভায় জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সচিব, কারিগরি ও মাদরাসা বিভাগের সচিব, আইজিপি, পরিবহন মালিক সমিতি ও শ্রমিক ফেডারেশনের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সর্বশেষ খবর