শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ৪ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ২১:৪৬

যত আয়োজন

যত আয়োজন

দোলনচাঁপার আয়োজনে উজ্জয়িনীর যাত্রা

নারী সংগ্রামের সঙ্গে আমরা সবাই পরিচিত। যদিও এই সংগ্রামের পরিসর গৃহস্থালি থেকে রণক্ষেত্র পর্যন্ত কিন্তু যাদের সংগ্রামের ফলশ্রুতিতে আমাদের এতদূর আসা, তাদের অনেকের পরিচয় এখনো অজানা। এমনইভাবে ১৯৭১ সালের মুক্তিযুদ্ধে রয়েছে সব বয়সের নারীদের আত্মত্যাগ। কেউ হয়তো মেডিকেল ক্যাম্পে দিন-রাত মুক্তিবাহিনীর সেবায় নিয়োজিত ছিলেন, কেউ পরিবারের সদস্যদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নিজ বাড়িতে আশ্রয় দিয়েছিলেন মুক্তিবাহিনীদের। কোনো কোনো নারী নিজ হাতে অস্ত্র নিয়ে নেমে পড়েছিলেন শত্রু দমনের জন্য। এখনো তাদের আত্মত্যাগের অনেক গল্প পৌঁছোতে পারেনি বইয়ের পাতায়। সেসব মহী-

য়সী বীর মুক্তিযোদ্ধাদের দেশ ও জাতির কাছে তুলে ধরার একটি ক্ষুদ্র প্রচেষ্টায়, মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে, দোলনচাঁপার বর্তমান ৪টি মহিলা বাস ৪ জন মহিলা বীর মুক্তিযোদ্ধা-বীর প্রতীক প্রয়াত তারামন বিবি, বীর মুক্তিযোদ্ধা পদ্মা রহমান, বীর মুক্তিযোদ্ধা আসমা আক্তার কল্পনা ও বীর মুক্তিযোদ্ধা ইরা কর প্রমুখের নামে নামকরণ করা হয়েছে গেল পুরো ডিসেম্বর মাসজুড়ে। র‌্যাংগস মটরসের হেড অফিসে একটি অনুষ্ঠান আয়োজন করা হয়েছে যেখানে আমন্ত্রিত হয়েছেন উক্ত তিনজন বীর মুক্তিযোদ্ধা পদ্মা রহমান, আসমা আক্তার কল্পনা ও ইরা কর। সেখানে তারা তাদের যুদ্ধকালীন কিছু লোমহর্ষক ও গৌরবময় ঘটনার কথা উল্লেখ করেন। এর সঙ্গেই দোলনচাঁপার সার্ভিস সম্পর্কে অনেক ইতিবাচক মন্তব্য প্রদান করেন। দোলনচাঁপা, নারীদের দৈনন্দিন চলাফেরার ভোগান্তি ও হয়রানিকে মাথায় রেখে র‌্যাংগস মটরসের প্রধান নির্বাহী মিসেস সোহানা রুউফের একটি পরিকল্পনা। দোলনচাঁপা নিয়ে কিছু কথা না বললেই নয়। শুরুতে নারী যাত্রা সুরক্ষিত ও স্বাচ্ছন্দ্যবোধ প্রায় অসম্ভব দাঁড়িয়েছিল। তাদের কথা চিন্তা করেই শুরু হলো দোলচাঁপা বাস সার্ভিস। এ উদ্যোগ ভলভো আইশার কমার্শিয়াল ভেহিকেল লিমিটেড দ্বারা সমর্থিত। বর্তমানে স্বল্পসংখ্যাক বাস চালু করলেও ভবিষ্যতে ৫০টি বাস চালু করার কার্যক্রম চলছে। এ উদ্যোগটি শুধু মহিলা বাস সার্ভিসকে কেন্দ্র করেই নয় বরং মহিলাদের চলার পথ সহজ ও সুরক্ষিত করার পাশাপাশি, কর্মসংস্থান বৃদ্ধি করে তাদের স্বাবলম্বী করে তোলাই মূল উদ্দেশ্য।

নতুন বছরে নতুন পোশাক

প্রতিদিনকার জীবনে নানা কাজে ঘরে বাহিরে ব্যস্ত মেয়েরা পিছিয়ে নেই ফ্যাশনেও। প্রতিনিয়তই আধুনিক ও ট্রেন্ডি পোশাক খুঁজে নিচ্ছেন ফ্যাশন সচেতন মানুষ। আর তাই কে ক্র্যুাফ্ট নতুন বছরে এনেছে নতুন ধারার কিছু কুর্তি। আধুনিক ও ট্রেন্ডি লুক তো থাকবেই তার সঙ্গে মাথায় রাখা হয়েছে আরামদায়ক অনুভূতির বিষয়টি। চেক কটন, স্ট্রাইপ কটন, জ্যাকার্ট কটনের আরামদায়ক কাপড়ের কুর্তিতে প্যাটার্নেও বজায় রাখা হয়েছে স্বাচ্ছন্দ্যতা এবং সব ঋতুতে ব্যবহার উপযোগী রং। পাওয়া যাচ্ছে  কে ক্র্যাফ্টের প্রতিটি আউটলেটে।

 

বার্ডস আইয়ে স্টাইলিশ হুডিওয়্যার

বার্ডস আই নিয়ে এসেছে নতুন ফুলহাতা স্টাইলিশ হুডিওয়্যার। পাওয়া যাবে ফুলহাতা পলোশার্ট, টি-শার্ট, জ্যাকেট, হুডিক্যাপ শার্ট, পাঞ্জাবি ও ছোটদের শীতের পোশাক। পোশাকগুলো পাইকারি ও খুচরা পাওয়া যাচ্ছে ঢাকার আজিজ সুপার মার্কেটে বার্ডস আইয়ের পাঁচটি শোরুমে। যোগাযোগ : বার্ডস আই, আজিজ সুপার মার্কেট (প্রথম ও দ্বিতীয় তলা), শাহবাগ, ঢাকা-১০০০।

ফোন : ০১৯১৫-০৬৮১৫৩।


আপনার মন্তব্য