শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ জুলাই, ২০২০ ১৭:৩৯

ব্রিটিশ অর্থনীতি বাঁচাতে বিশেষ পরিকল্পনা

আ স ম মাসুম, যুক্তরাজ্য :

ব্রিটিশ অর্থনীতি বাঁচাতে বিশেষ পরিকল্পনা

ব্রিটিশ অর্থনীতি বাঁচাতে ব্রিটিশ চ্যান্সেলর ঋষি সুনাক বিশেষ পরিকল্পনা নিয়েছেন। এতে বিশেষ সুবিধা পেতে যাচ্ছে হসপিটালিটি সেক্টর। এর ফলে ব্রিটেনের রেস্টুরেন্ট সেক্টর পুনরুজ্জীবিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

নতুন এই পরিকল্পানার আওতায় হসপিটালিটি খাতে ভ্যাট কর্তন এবং বেকারত্ব গোছাতে ৩০ বিলিয়ন পাউন্ড বরাদ্দ ঘোষণা করেছেন চ্যান্সেলর।

হাউজ অব কমন্সে বুধবার নতুন পরিকল্পনা উপস্থাপনকালে তিনি বলেন, অক্টোবরে ফারলো প্রকল্পটি বন্ধ হয়ে যাওয়ার পর যে সমস্ত ব্যবসা প্রতিষ্ঠান তিন মাস তাদের কর্মীদের কাজে রাখবে, প্রত্যক কর্মীর জন্য সরকার ঐ সকল ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে এক হাজার পাউন্ড বোনাস প্রদান করবে ।

এদিকে করোনা মহামারির এই সময়ে ব্রিটেনের কারী শিল্প অত্যন্ত সংকটময় সময় পার করছে। বাংলাদেশ ক্যাটারার্স অ্যাসোসিয়েশন ইউকে করোনার অত্যন্ত কঠিন সময়ে ব্রিটেনের কারী শিল্পকে বাঁচিয়ে রাখতে মূল্য সংযোজন কর ২০ শতাংশের স্থলে ৫ শতাংশ করার বিসিএর দাবি গৃহীত হওয়ায় চ্যান্সেলরকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সংগঠনটির নেৃতবৃন্দ।

ঋষি সুনাক জানান আগামী ১৫ জুলাই থেকে আগামী বছরের ১২ জানুয়ারির মধ্যে ভ্যাট কমিয়ে ১৫% থেকে ৫% করা হয়েছে। 

আগস্ট মাসের প্রতি সোমবার থেকে বুধবার পর্যন্ত ক্যাফে, রেস্তোঁরা, পাবে অর্ধেক মুল্যে খাবার খাওয়া যাবে। তবে জনপ্রতি ১০ পাউন্ড পর্যন্ত দিবে সরকার। এতে শিশুদেরও অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তবে অ্যালকোহল বা মদ পানে কোন অর্থ দেয়া হবে না। এই ডিসকাউন্ট আন লিমিটেড। মানুষ যত খুশি ততবার বাইরে খাবার গ্রহণ করে ডিসকাউন্ট সুবিধা নিতে পারবেন।
সরকার বলছে প্রতি পরিবার গড়ে ২০ পাউন্ড সপ্তাহে বাইরের খাবার গ্রহণ করে থাকেন। এই হিসেবে একটি পরিবারের ৪ সদস্যের যদি বাইরের খাবার বিল ৮০ পাউন্ড হয় তারা ৪০ পাউন্ড ডিসকাউন্ট পাবেন। 

ব্যবসায়ীরা ডিসকাউন্টে খাবারের অর্থ দাবি করার ৫ কর্ম দিবসের মধ্যে একাউন্টে পেয়ে যাবেন সরকারের পক্ষ থেকে।
হসপিটালিটি ইন্ড্রাটির ১.৮ মিলিয়ন মানুষের চাকুরী রক্ষায় সরকার এই উদ্যোগ গ্রহন করেছে বলে জানানো হয়েছে। 

এদিকে ভ্যাট মওকুফের সুবিধা পাবে রেস্তোঁরা, ক্যাফে, পাব, হোটেল, বিএন্ডকিউ, কেরাবিয়ান সাইট, সিনেমা, থিমস পার্ক এবং চিডিয়াখান।

অন্যদিকে আবাসন শিল্প রক্ষায় বাড়ি ঘর ক্রয় করতে ৫শ হাজার পর্যন্ত স্ট্যাম্প ডিউটি মওকুফ করা হয়েছে। ফলে সাড়ে ৪হাজার পাউন্ড পর্যন্ত স্ট্যাপ ডিউটি বা শুল্ক দিতে হবে না ক্রেতাদের। এই সুযোগ থাকবে আগামী বছরের ৩১ মার্চ পর্যন্ত।

ওয়ার্ক এন্ড পেনশন সেক্টরে মিলিয়ন মিলিয়ন মানুষকে সেবা দিতে নতুন কর্মসংস্থানের জন্য ১.২ বিলিয়ন পাউন্ড বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

ইঞ্জিনিয়ারিং, নির্মান এবং স্যোশাল কেয়ার সার্ভিসে নতুনদের কাজে প্রশিক্ষণ দিতে ফার্মগুলোকে ১ হাজার পাউন্ড করে অর্থ সহায়তা দিবে সরকার।

কারী শিল্পের প্রতিনিধিত্বকারী সংগঠন বিসিএ গত মার্চ মাস থেকে সরকারের জরুরি ব্যবস্থাপনার বিশেষ প্যাকেজের জন্য সরকারকে ধন্যবাদ জানিয়েছিল। ব্রিটেনের বাণিজ্যিক খাতে কারী ইন্ড্রাষ্টির অবস্থান ষষ্ঠ এবং জাতীয় অর্থনীতিতে বাৎসরিক ৪.২ বিলিয়ন এর বেশী রাজস্ব আয়ের অবদান রাখছে এই শিল্প।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর