শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ জুলাই, ২০২০ ২০:০৭
আপডেট : ১১ জুলাই, ২০২০ ২০:৪৬

ভিডিও কনফারেন্স চলাকালীন একি কাণ্ড করলেন কূটনীতিক!

অনলাইন ডেস্ক

ভিডিও কনফারেন্স চলাকালীন একি কাণ্ড করলেন কূটনীতিক!

কয়েক জন কূটনীতিক আলোচনা করছিলেন ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে। হয়তো এটি রুটিন আলোচনা ছিল। কিন্তু সেই ভিডিও কনফারেন্স আজ গোটা বিশ্ব দেখছে। কারণ সেখানে এক কূটনৈতিক এমন কাণ্ড করে বসলেন যে তাদের ভিডিও কনফারেন্সটি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। 

তবে ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর সেটিকে ফেক বলেও দাবি করেছেন ওই কূটনীতিক।

আমেরিকায় নিযুক্ত সাউথ সুদানের ওই কূটনীতিকের নাম গর্ডন বুয়ায়, তার আজব কাণ্ডের কারণেই ভিডিও কনফারেন্সে অংশ নেওয়া বাকিদেরও অপ্রস্তুত হতে হল। 

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, আটটি উইন্ডোতে কূটনীতিকরা আলোচনা করছেন। আলোচনার মধ্যেই দেখা যায় একটি ইউন্ডোতে উপস্থিত কূটনীতিক বাথরুমের দিকে এগোচ্ছেন। তার শরীরের নিচের অংশ কিছু পরা ছিল কিনা তাও বোঝা যাচ্ছে না। একটু পরের তাকে বাথরুমে পৌঁছাতে দেখা যায়। সেখানে তাকে প্রস্রাবও করতেও দেখা যাচ্ছে স্পষ্ট ভাবে।

গর্ডনের এই কাণ্ড দেখে হাসাহাসিও শুরু করে দেন অন্য দুই কূটনীতিক। বাকিরা তো কেমন অবাক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থাকেন। আলোচনায় সেই সময় যিনি কথা বলছিলেন, তিনি বার বার যেন থমকে যাচ্ছিলেন। আসলে এমন একটা দৃশ্য যে তাদের ভিডিও কনফারেন্সের সময় দেখতে হবে, তা মনে হয় কেউ আশা করেননি।

গর্ডন আমেরিকায় নিযুক্ত সাউথ সুদানের ডেপুটি অ্যাম্বাসাডর। তার মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে নিযুক্ত কোনও কূটনীতিক ভিডিও কনফারেন্সে এমন কাজ করতে পারেন, তা মনে হয় কেউ আশাও করেননি। তিনি ক্যামেরা অফ করে বাথরুমে যেতে পারতেন। কিন্তু তা তিনি করেননি, এমনকি মাইক্রোফোনও মিউট করেননি। তিনি ভিডিও কনফারেন্স থেকে কিছুক্ষণের জন্য উঠে গিয়ে বাথরুমে যেতে পারেতেন তাও না করে তিনি মোবাইল নিয়েই বাথরুমে প্রবেশ করেন।

এই ভিডিও সামনে আসার পর যেমন হাসাহাসি শুরু হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই সঙ্গে অনেকে সমালোচনাও শুরু করেছেন। যদিও গর্ডন পরে দাবি করেছেন, ভিডিওটি ফেক। সূত্র: আনন্দবাজার।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর