Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ আগস্ট, ২০১৯ ১৫:৪৯

মন্দিরে প্রবেশের সময় পদদলিত হয়ে নিহত ২, আহত ২০

দীপক দেবনাথ, কলকাতা

মন্দিরে প্রবেশের সময় পদদলিত হয়ে নিহত ২, আহত ২০

পশ্চিমবঙ্গের উত্তর চব্বিশ পরগনায় পদদলিত হয়ে মৃত্যু হয়েছে কমপক্ষ ২ জনের, আহত অন্তত ২০ জন, এর মধ্যে ৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। হিন্দু দেবতা লোকনাথ বাবার জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যাবেলা থেকে কচুয়ায় লোকনাথ মন্দিরে জড়ো হয়েছিল অসংখ্য ভক্ত। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে তারা এসেছিলেন ওই মন্দিরে। মন্দিরের প্রধান গৃহে ঢোকার মুখেই ভিড়ের চাপে রাত ২টা নাগাদ হঠাৎ একটি পাঁচিলের একাংশ ভেঙে পড়ে। এরপরই পুণ্যার্থীদের মধ্যে হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। আর তখনই পদপিষ্ট হয়ে আহত হন বহু মানুষ। রাতে বৃষ্টির হাত থেকে বাঁচতেই একসাথে একাধিক মানুষ সেসময় ওই মন্দিরের ভিতরে প্রবেশের চেষ্টা করতেই এই দুর্ঘটনা বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান করা হচ্ছে। গোটা ঘটনার জেরে কচুয়া ধাম মন্দির সংলগ্ন এলাকায় যথেষ্ট আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে।

দুর্ঘটনার পর উদ্ধারকাজে অংশ নেয় পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবকরা। রাতেই তাদের কচুয়া অস্থায়ী স্বাস্থ্য শিবিরে প্রাথমিক চিকিৎসার পর বসিরহাট মহুকুমা হাসপাতাল, ধাণ্যকুড়িয়া প্রাথমিক হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। অবস্থা অবনতির কারণে রাতেই একাধিক মানুষকে কলকাতার আর.জি.কর হাসপাতাল, ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ-হাসপাতাল এবং এসএসকেএম হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

শুক্রবার দুপুরের দিকে ন্যাশনাল মেডিকেল কলেজে আহতদের দেখতে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যনার্জি। সেখানে আহতদের চিকিৎসার খোঁজখবর নেওয়ার পাশাপাশি চিকিৎসকদের সাথেও কথা বলেন তিনি। দুর্ঘটনায় মৃত ও আহতদের পরিবার পিছু আর্থিক ক্ষতিপূরণের ঘোষনা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানান, এবছর কচুয়া লোকনাথ মন্দিরে প্রচুর ভক্ত উপস্থিত হয়েছিলেন। মাঝ রাত থেকে প্রচণ্ড বৃষ্টি শুরু হয় ফলে বাঁশের তৈরি তাবুর তলায় মানুষ আশ্রয় নেয়। ভারি বর্ষণের ফলে ওই অস্থায়ী ছাউনি ভেঙে পড়ে। জায়গাটি সরু হওয়ার কারণে, মন্দিরের পাশে একটি পুকুরের মধ্যে অনেকে পড়ে যায়। আর তাতেই পদপৃষ্ঠের ঘটনা ঘটে।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য