শিরোনাম
প্রকাশ : ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২১:২২

পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হচ্ছেই : দিলীপ ঘোষ

দীপক দেবনাথ, কলকাতা

পশ্চিমবঙ্গে এনআরসি হচ্ছেই : দিলীপ ঘোষ
ফাইল ছবি

ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেছেন, আসামের থেকে পশ্চিমবঙ্গে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) চালু করা বেশি জরুরী। কারণ বাংলাদেশ থেকে দুই কোটি বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশকারী বাংলায় ঢুকেছে। যার মধ্যে এক কোটি লোক রয়ে গেছে এ রাজ্যে এবং এক কোটি ছড়িয়ে রয়েছে গোটা ভারতে। আর এদের সবাইকে চিহ্নিত করতে এনআরসি'র প্রয়োজন। 

এনআরসি'র প্রতিবাদ জানিয়ে বৃহস্পতিবার দুপুরে মিছিল করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যনার্জি। তাকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে সংবাদ সম্মলেন করে দিলীপ জানান, "খুব শীঘ্রই দেখতে পারবেন কিভাবে বাংলায় এনআরসি হচ্ছে এবং তৃণমূলের ভোট ব্যাংক হিসাবে যাদের ব্যবহার করা হচ্ছে সেই অনুপ্রবেশকারীদের কিভাবে বিতাড়িত করা হয়। এই এনআরসি কেউ আটকাতে পারবেনা।
 
দিলীপের অভিযোগ, "শেষ দুই বছরে এ রাজ্যে দুই কোটি বাংলাদেশি রোহিঙ্গা মুসলিম অবৈধ ভাবে প্রবেশ করেছেন। এর মধ্যে এক কোটি দেশের অন্য প্রান্তে ছড়িয়ে আছে আর এক কোটি তৃণমূলের আশ্রয়ে এ রাজ্যে আছে। আজ অথবা কাল তাদের এ রাজ্য থেকে ছুঁড়ে ফেলে দেওয়া হবে এবং বিজেপি সেটা করেই ছাড়বে এবং মমতা ব্যানার্জি তা নিজের চোখে দেখবেন।" 

উল্লেখ্য, গত ৩১ আগষ্ট অসমে প্রকাশিত হয়েছে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) চূড়ান্ত তালিকা। তালিকায় অন্তর্ভুক্তি হয়েছে ৩ কোটি নাম। তালিকা থেকে বাদ পড়েছে ১৯ লাখ বাসিন্দার নাম। এই বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক মতপাথ্যর্ক থাকলেও আসামের মতো বাংলাতেও এনআরসি চালুর দাবিতে তৎপরতা শুরু হয়েছে বিজেপি শিবিরে। 

 

বিডি প্রতিদিন/ তাফসীর আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর