শিরোনাম
প্রকাশ : ১৬ জুন, ২০২১ ১৪:১২
প্রিন্ট করুন printer

জন্মদিনে পুলিশি জেরার মুখে মিঠুন চক্রবর্তী

অনলাইন ডেস্ক

জন্মদিনে পুলিশি জেরার মুখে মিঠুন চক্রবর্তী
Google News

জন্মদিনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে বিজেপি নেতা ও অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তীকে। ভোটের সময় উস্কানিমূলক মন্তব্যের অভিযোগে বুধবার তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন মানিকতলা থানার কর্মকর্তারা। মামলার কাঁটা সরাতে আগেই হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন মিঠুন। উচ্চ আদালত ওই অভিনেতাকে তদন্তে সহযোগিতার নির্দেশ দিয়েছে।

কলকাতা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সকালে প্রায় ৪৫ মিনিট মিঠুনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। মিঠুন কবে, কী বক্তৃতা করেছেন তা জানতে চান তদন্তকারীরা। বিজেপি-র হয়ে তিনি নির্বাচনী প্রচারে যোগ দিয়েছিলেন নাকি তাকে অর্থের বিনিময়ে আনা হয়েছিল, তা-ও জানতে চাওয়া হয় বলে পুলিশ সূত্রে খবর।

যে সংলাপগুলি মিঠুন বিজেপি-র হয়ে নির্বাচনী প্রচারে বলেছিলেন তার পিছনে কারও নির্দেশ ছিল কি না তা-ও জানতে চান পুলিশ কর্মকর্তারা। মিঠুন উত্তর দেন, টাকার বিনিময়ে নয়, তিনি বিজেপি-র আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়েই প্রচারে যোগ দিয়েছিলেন। তার মনে হয়েছিল, ওই সংলাপ মানুষের ভীষণ পছন্দের। তাই সেই সব সংলাপ তিনি নির্বাচনী প্রচারে বলেছিলেন। 

মিঠুনের বিরুদ্ধে করা ওই অভিযোগ খারিজের দাবিতে গত ১১ জুন মিঠুন কলকাতা হাই কোর্টের আবেদন করেছিলেন। তবে হাই কোর্ট জানিয়েছিলেন, তদন্তে সহযোগিতা করতে হবে মিঠুনকে। ওই মামলার পরবর্তী শুনানি ১৮ জুন।

রাজ্যে বিধানসভা ভোটের আগে গত মার্চ মাসের শুরুর দিকে ব্রিগেডের মঞ্চে বিজেপি-তে যোগ দেন মিঠুন। সে দিন তার মুখে শোনা যায় তার অভিনীত ছায়াছবির একাধিক সংলাপ। মিঠুন বলেন, ‘‘মারব এখানে লাশ পড়বে শ্মশানে, এই ডায়লগটা চলবে।’’ আরও বলেন, ‘‘আমার প্রচার শুরু করার আগে, একটা জিনিস মাথায় রাখবেন। এখানে সকলের ভাষণ এক জায়গায় করলে যা দাঁড়ায় তা হল, আমি জলঢোঁড়াও নই, বেলেবোড়াও নই, আমি জাত গোখরো। এক ছোবলে ছবি।’’ এর পর একাধিক জায়গায় বিজেপি-র হয়ে প্রচারে গিয়ে ওই সংলাপ বলেন মিঠুন। হাততালিও কুড়োন বিজেপি সমর্থকদের। তা নিয়েই পুলিশে অভিযোগ দায়ের হয়।

সূত্র : আনন্দবাজার পত্রিকা

 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই বিভাগের আরও খবর