শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ নভেম্বর, ২০১৮ ২৩:৪৪

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পাঠকের প্রথম পছন্দ

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

চাঁপাইনবাবগঞ্জে পাঠকের প্রথম পছন্দ

চাঁপাইনবাবগঞ্জেও প্রচার সংখ্যার শীর্ষে রয়েছে ‘দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন’। জেলায় চারজন এজেন্টের মাধ্যমে প্রায় ৪০ জন হকার বাংলাদেশ প্রতিদিনসহ বিভিন্ন কাগজ বিক্রি করেন।

হকাররা জানান, সংবাদপত্র পাঠকদের কাছে প্রথম চাহিদাই বাংলাদেশ প্রতিদিন। যখন তারা এ পত্রিকা পান না তখন তারা অন্য পত্রিকা কেনেন। বাংলাদেশ প্রতিদিন-এর চাহিদার কারণ, অল্প কথায় মূল সংবাদ থাকে। থাকে সম্পাদকীয়, উপ-সম্পাদকীয়। এ ছাড়াও আন্তর্জাতিক সংবাদসহ খেলার সব রকম সংবাদও পেয়ে যান পাঠকরা। সংবাদপত্র এজেন্ট আলহাজ মো. সেতাব উদ্দিন জানান, ছোট পাঁচটি উপজেলা নিয়ে গঠিত চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় বাংলাদেশ প্রতিদিন বিক্রি হয় ১ হাজার ৭৩০ কপি। দ্বিতীয় অবস্থানে যে পত্রিকাটি সেটি বিক্রি হয় ১ হাজার ৩৮০ কপি। তিনি বলেন, এ অঞ্চলে বাংলাদেশ প্রতিদিন বেশি বিক্রি হয়। শহর অঞ্চলে বেলা ১টার মধ্যে এবং প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে ৫টার মধ্যে বাংলাদেশ প্রতিদিন বিক্রি হয়ে যায়। বাংলাদেশ প্রতিদিন বেশি বিক্রির কারণ প্রথমত দাম কম। এ ছাড়া বিশ্বাসযোগ্য ও তথ্যবহুল সংবাদ প্রকাশ হয়। এ কারণেই বাংলাদেশ প্রতিদিন বেশি বিক্রি হয়। অপর সংবাদপত্র এজেন্ট দিলীপ কুমার সাহা জানান, এই অঞ্চলে বাংলাদেশ প্রতিদিন বেশি বিক্রি হয়। বেলা ২টার মধ্যে বাংলাদেশ প্রতিদিন বিক্রি হয়ে যায়। বেশি বিক্রির কারণ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দাম কম ও ভালো নিউজের কারণে বাংলাদেশ প্রতিদিন বেশি বিক্রি হয়। সংবাদপত্র এজেন্ট মো. আবদুল জাব্বার জানান, এই অঞ্চলে বাংলাদেশ প্রতিদিন বেশি বিক্রি হয়। সন্ধ্যার দিকে আর কোনো পত্রিকা থাকে না। সংবাদপত্র এজেন্ট মো. আবদুল কাদের জানান, বিকাল ৩টার দিকে বাংলাদেশ প্রতিদিন বিক্রি হয়ে যায়। দাম কম হওয়া সত্ত্বেও এ পত্রিকায় বেশি সংবাদ থাকে। সংবাদগুলো বিশ্বাসযোগ্য। এসব কারণেই বাংলাদেশ প্রতিদিন বেশি বিক্রি হয়। তিনি বলেন, মাঝে মধ্যে পত্রিকা দেরিতে এলে কয়েকটি কপি থেকে যায়। কিন্তু সেগুলো ফেরত নেওয়া হয় না। মাঝে মধ্যে পত্রিকার বান্ডিলে কম পত্রিকা থাকায় নিয়মিত পাঠকদের হাতে বাংলাদেশ প্রতিদিন দেওয়া সম্ভব হয় না। এ জন্য তিনি পত্রিকা কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করেন।


আপনার মন্তব্য