শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১ জানুয়ারি, ২০১৯ ২৩:৫৬

কে হচ্ছেন নতুন মন্ত্রী

সিলেটজুড়ে আলোচনায় মোমেন-ফরাস

শাহ্ দিদার আলম নবেল, সিলেট

সিলেটজুড়ে আলোচনায় মোমেন-ফরাস

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট বিভাগের ১৯টি আসনের মধ্যে ১৭টিতেই জয় পেয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ জোট। নির্বাচনের পর সিলেটজুড়ে এখন শুরু হয়েছে নতুন আলোচনা। আগামী সরকারের মন্ত্রিসভায় সিলেট থেকে নতুন কারা মন্ত্রী হিসেবে ঠাঁই পাচ্ছেন, এ আলোচনা এখন সর্বত্র। সাধারণ মানুষ মনে করছেন, সিলেট-১ আসনে নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য ড. এ কে আবদুল মোমেন এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাস উদ্দিনের মধ্যে কোনো একজন মন্ত্রিসভায় স্থান পেতে পারেন।

সিলেট বিভাগ থেকে বর্তমান মন্ত্রিসভায় মন্ত্রী আছেন তিনজন। তন্মধ্যে দুজন পূর্ণ মন্ত্রী, অপরজন প্রতিমন্ত্রী। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ও অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম আবদুল মান্নান। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চাইলে আরও এক বছর মন্ত্রিসভায় থাকার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন মুহিত। সেক্ষেত্রে তাকে টেকনোক্র্যাট কোটায় মন্ত্রিসভায় রাখতে হবে। অন্যদিকে আগামী মন্ত্রিসভাতেও শিক্ষামন্ত্রী নাহিদ ও অর্থ প্রতিমন্ত্রী মান্নান জায়গা পাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এর বাইরে নতুন কেউ মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পান কিনা, তা নিয়েই সাধারণ মানুষের মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ কাজ করছে। ড. এ কে আবদুল মোমেন জাতিসংঘে বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত ও সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে তিনি দেশে ফিরে সিলেট-১ আসনে রাজনীতিতে সক্রিয় হন। আবুল মাল আবদুল মুহিতের এই ছোট ভাই এবার নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে বিজয়ী হয়েছেন। এখানকার মানুষের ধারণা, অতীতের ধারাবাহিকতায় এবারও সিলেট-১ আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্যকে মন্ত্রিসভায় স্থান দেওয়া হতে পারে। ড. মোমেন কূটনৈতিক হিসেবে দক্ষ, অর্থনীতিতেও দখল রয়েছে তার। এ প্রেক্ষিতে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় কিংবা অর্থ মন্ত্রণালয়ে জায়গা পেতে পারেন তিনি, এমন গুঞ্জন রয়েছে। অন্যদিকে ড. মোহাম্মদ ফরাস উদ্দিন বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর। অর্থনীতিতে তার দক্ষতা ও অভিজ্ঞতার কারণে আগামী মন্ত্রিসভায় টেকনোক্র্যাট কোটায় শেখ হাসিনা তাকে স্থান করে দিতে পারেন বলে অনেকেই ধারণা করছেন। অবশ্য অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ ও অর্থ প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান যদি ফের মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পান, তবে সিলেট থেকে অন্য কাউকে মন্ত্রী করা কঠিন হবে বলেই মনে করছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতারা। সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী বলেন, ‘পূণ্যভূমি সিলেট থেকে সবসময়ই একাধিক সংসদ সদস্যকে মন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়। এবারও এর ব্যতিক্রম হবে না। ড. মোমেন মন্ত্রিসভায় স্থান পেতে পারেন। তবে বর্তমান তিন মন্ত্রী যদি মন্ত্রিসভায় টিকে থাকেন, তবে অন্য কারও স্থান পাওয়া কিছুটা কঠিনই হবে।’

 


আপনার মন্তব্য