শিরোনাম
প্রকাশ : রবিবার, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ ২৩:২৯

ওআইসিতে প্রথমবারের মতো পর্যবেক্ষক ভারত

নয়াদিল্লি প্রতিনিধি

ওআইসিতে প্রথমবারের মতো পর্যবেক্ষক ভারত

এই প্রথম অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক দেশের (ওআইসি) পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে ভারত আমন্ত্রিত। গত বছরের মে মাসে তুরস্কের সমর্থনে বাংলাদেশ প্রথম ভারতকে ওআইসিতে পর্যবেক্ষক দেশের মর্যাদা দেওয়ার প্রস্তাব পেশ করেছিল। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রভীশ কুমার জানান, ‘আগামী ১-২ মার্চ সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী আবুধাবিতে এই অধিবেশনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দিতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ যাবেন।’ তিনি এও বলেন, ‘এই প্রথম ভারত আমন্ত্রিত।’ এই সম্মেলনে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আবদুল মোমেন যোগ দেবেন। তখন তার সঙ্গে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সম্মেলনের ফাঁকে ‘সৌজন্য সাক্ষাৎ’ হতে পারে বলে জানা গেছে। তবে ভারতের কাশ্মীরের পুলওয়ামাতে জঙ্গি হামলায় চল্লিশের বেশি নিরাপত্তা কর্মী নিহত হওয়ার পর এটাই প্রথম ওআইসির বৈঠক। এই প্রথম পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মহম্মদ কুরেশির সঙ্গে একমঞ্চে থাকবেন সুষমা স্বরাজ।

৫৭টি দেশ নিয়ে ওআইসি গঠিত। এর মধ্যে ৪৭ দেশের জনসংখ্যার মধ্যে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ। রাশিয়া এবং থাইল্যান্ড পর্যবেক্ষক দেশ। ভারত সদস্য হওয়ার চেষ্টা করলেও পাকিস্তানের আপত্তিতে সেটা হয়নি। গত বছর ওআইসি দেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী সম্মেলনে প্রথম বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভারতকে পর্যবেক্ষক দেশের মর্যাদা দেওয়ার প্রস্তাব পেশ করেন। বিশ্বের মধ্যে ভারতে তৃতীয় বৃহত্তম জনসংখ্যা হলো মুসলিমদের। মুখপাত্র রভীশ কুমার জানান, আবুধাবিতে অনুষ্ঠিত ওআইসির পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের ৪৬তম পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে ‘সম্মানীয় অতিথি’ হিসেবে সংযুক্ত আমির শাহীর পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আবদুল্লা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। সেখানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ভাষণও দেবেন। পুলওয়ামার জঙ্গি হামলার পর সুষমা এই প্রথম মুসলিম দেশের সংগঠনে ভারতের বক্তব্য তুলে ধরবেন। মুখপাত্র এও বলেন, ‘এই আমন্ত্রণ ভারতের ১৮ কোটি ৫০ লাখ মুসলিম নাগরিকের স্বীকৃতিস্বরূপ। তাদের বহুত্ববাদী ভারতীয় সমাজে এবং সমগ্র বিশ্বে ইসলামিক দুনিয়ায় ভারতের অবদানের হিসেবেও গুরুত্বপূর্ণ স্বীকৃতি।’


আপনার মন্তব্য