২৯ জানুয়ারি, ২০২২ ০৮:২৪

মুখ ও দাঁতের যত্ন কেন জরুরি

অধ্যাপক ড. অরূপরতন চৌধুরী

মুখ ও দাঁতের যত্ন কেন জরুরি

বিজ্ঞানীদের মতে দেহের বেশিরভাগ রোগের প্রভাব বা লক্ষণ মুখ গহ্বরে প্রথমে আসে। যেমন ধরুন দেহের প্রতিরোধ ক্ষমতা কমে গেলেই মুখের ভেতরে তার নানা উপসর্গ দেখা দিতে পারে। দেহের এই ইমুইন সিস্টেম বা প্রতিরোধ ক্ষমতা আমাদের দেহকে বাইরের রোগ জীবাণু থেকে রক্ষা করে। তবে এই প্রতিরোধ ক্ষমতা নানা কারণে কমে যেতে পারে যেমন, দেহের অন্যান্য রোগ, ওষুধের পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া, শরীরে কৃত্রিমভাবে স্থাপিত অঙ্গসমূহের জন্য নিয়মিত ওষুধ গ্রহণ অথবা ক্যান্সার রোগীদের জন্য নিয়মিত গ্রহণ করা কেমোথেরাপি ইত্যাদি। তাছাড়া দেহের অন্যান্য রোগের জন্য গ্রহণ করা নিয়মিত ওষুধ যেমন ডায়াবেটিস, উচ্চরক্তচাপ, হৃদরোগ, হাঁপানি, পেটের বা হার্টের অসুস্থতা ইত্যাদি। এসব রোগের বেশির ভাগই ওঠে মুখের ভেতরে পরিশেকে শুকিয়ে শুষ্ক করে দেয় ফলে দেখা দেয়- ডিহাইড্রেশন বা যাকে বলা হয় ড্রাই মাউথ (Dry Mouth)। মুখের এই শুষ্কতার জন্য দেখা দেয় নানান রোগ। যেমন ডেন্টাল ক্যারিজ বা দন্তক্ষয় সে সঙ্গে জীবাণু বা ব্যাকটেরিয়া বিস্তারও ঘটে। এর ফলে মুখের স্বাদ বা টেস্ট (tast) নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ডেন্টিজ বা দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ মুখ পরীক্ষা করার সময় এমন অনেক রোগও শনাক্ত করেন। যে সব রোগের উপস্থিতি রোগী নিজেরাও বুঝতে পারে না। এসব লক্ষণ দেখা দেওয়া মাত্র ডেন্টিস্ট কখনো বা অন্যান্য মেডিকেল বিশেষজ্ঞের কাছেও রেফার করেন। কারণ দেহের অনেক রোগই মুখের ভেতরে প্রাথমিক সমস্যা হিসেবে দেখা দেয়। যাদের দীর্ঘস্থায়ী রোগ বা সারাজীবনের রোগ আছে যেমন ডায়াবেটিস, উচ্চরক্তচাপ তাদের অবশ্যই নিয়মিতভাবে মুখও দন্তরোগ বিশেষজ্ঞের কাছে পরীক্ষা করা প্রয়োজন। কারণ মুখের অনেক সমস্যাই দেহের অন্য রোগকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে বা সুস্থ রাখতে অসুবিধার সৃষ্টি করে। অতএব মাড়ির ও দাঁতের সুস্থতা নিয়ন্ত্রণ করা এক্ষেত্রে অবশ্যই প্রয়োজন। গবেষকরা ইতিমধ্যেই প্রমাণ করেছেন যে, মুখের ভেতরে মাড়ির রোগ (Periodontal disease) দেহের অন্য রোগ সৃষ্টির প্রধান কারণ হতে পারে। এসব রোগের মধ্যে হৃদরোগ এবং কম ওজনের শিশু ভূমিষ্ট হওয়া অন্যতম।  

শরীরের সঙ্গে মনের সম্পর্ক সম্বন্ধ নিয়ে আমরা হয়ত অনেককিছুই জানি। কিন্তু মুখের সঙ্গে শরীরের সম্পর্ক নিয়ে কতটুকু জানি। অনেকের কাছে ডেন্টাল ক্লিনিকে আসা মানেই হচ্ছে দাঁত ও মাড়ি পরিস্কার করা (Scaling), দাঁত তুলে ফেলা (Extraction) অথবা দাঁতের ফিলিং করা। তবে ডেন্টাল ক্লিনিকে বা হাসপাতালে যাওয়া শুধু মাত্র দাঁতের জন্যই নয়। এটা সম্পূর্ণ দেহের জন্য। কারণ যা কিছু মুখে ঘটুক না কেন তার প্রভাব দেহের উপরও পড়ে। অনুরূপভাবে দেহের যে কোনো অঙ্গ রোগাক্রান্ত হলে তার প্রভাবও মুখের উপর আসে। বিভিন্ন গবেষণা ও তথ্য থেকে পাওয়া বাস্তবতা হলো মুখের স্বাস্থ্য ভালো না থাকলে বা রোগাক্রান্ত থাকলে দেহে বিভিন্ন রোগ দেখা দিতে পারে। যেমন হৃদরোগ, আলজিমারস রোগ, শ্বাসকষ্ট জনিত রোগ, ডায়াবেটিস, পেটের হজম ও শিশুদের আচরণ বা বেড়ে উঠতে অসুবিধা ইত্যাদি।  

লেখক : সান্মানিক সিনিয়র কনসালটেন্ট ডেন্টিস্ট্রি বিভাগ, বারডেম হাসপাতাল, ঢাকা।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর