শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ১০:২৮
আপডেট : ৪ ডিসেম্বর, ২০২০ ১৪:১১
প্রিন্ট করুন printer

চিকিৎসার পরেও ওজন কমেনি ‌স্ত্রী‌র, চিকিৎসককে মারধর স্বামীর!

অনলাইন ডেস্ক

চিকিৎসার পরেও ওজন কমেনি ‌স্ত্রী‌র, চিকিৎসককে মারধর স্বামীর!
প্রতীকী ছবি

স্ত্রীর বাড়তি ওজন চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। ওজন কমাতে এক চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়েছিলেন স্বামী। খরচও করেন বেশ কিছু টাকা। কিন্তু টাকা খরচ করে একটুও ওজন কমেনি স্ত্রীর। আর তাই পেশায় শিক্ষক ভারতের সুরাটের বাসিন্দা ওই ব্যক্তি রেগে গেলেন চিকিৎসকের ওপরেই। ওই চিকিৎসককে মারধর করে টাকা লুটের অভিযোগও উঠল মনোজ দুধাগরা নামে ওই ব্যক্তির উপর।

জানা গেছে, স্ত্রীর ওজন কমানোর জন্য সুরাটের শ্রীজি সোসাইটিতে অবস্থিত অজয় মোরাদিয়া নামে এক চিকিৎসকের ক্লিনিকে যায় মনোজ। সেখানেই তার স্ত্রীর ওজন কমানোর চিকিৎসা শুরু হয়। কিন্তু বেশ কয়েকদিন চিকিৎসা চলার পরও মনোজের স্ত্রীর ওজন কমেনি। এরপরই ওই চিকিৎসকের উপর গিয়ে তার রাগ পড়ে। অজয় মোরাদিয়ার ক্লিনিকে গিয়ে ঝামেলা বাঁধায় মনোজ।

এরপরই ওই চিকিৎসকের কাছ থেকে চিকিৎসা বাবদ খরচ করা টাকাও ফেরত চায় সে। কিন্তু অজয় টাকা দিতে অস্বীকার করেন। অভিযোগ এরপরই চিকিৎসকের উপর চড়াও হয় মনোজ। একটি লোহার ব্লেড দিয়ে আঘাতও করে। সেই সঙ্গে চলে মারধরও। এমনকি, যাওয়ার আগে মোরাদিয়ার মানিব্যাগ থেকে ১৫০০ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। 

গুরুতর আহত অবস্থায় ওই চিকিৎসককে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই আপাতত চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। খবর পেয়ে তদন্তে নেমেছে পুলিশও। পলাতক মনোজের খোঁজে চলছে তল্লাশি। এছাড়া একাধিক ধারায় মামলাও রুজু হয়েছে। 

তদন্তে পুলিশ জানতে পেরেছে, বিভিন্ন আয়ুর্বেদিক প্রোডাক্টও বিক্রি করতে অজয় মোরাদিয়া নামে ওই চিকিৎসক। আর দীর্ঘদিন ধরেই মনোজের স্ত্রীর চিকিৎসাও করছিলেন। এদিকে, এই ঘটনার কথা প্রকাশ্যে আসতেই অনেকেই হতবাক হয়ে গেছেন। স্ত্রীর ওজন না কমায় একজন ব্যক্তি যে এরকম কাজও করতে পারেন, তা অনেকেই বিশ্বাস করতে পারছেন না।‌


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর