Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ মে, ২০১৯ ২০:৩৫

একত্রিত হচ্ছে ঘোড়াশাল ও পলাশ সার কারখানা

শিল্প কারখানাগুলোতে নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস ও বিদ্যুৎ সরবরাহের সুপারিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক

একত্রিত হচ্ছে ঘোড়াশাল ও পলাশ সার কারখানা

অধিক ক্ষমতাসম্পন্ন সার কারখানা নির্মাণ করতে ঘোড়াশাল ও পলাশ এই দু’টি সারকারখানা একত্রিত করার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। যার মাধ্যমে কৃষি উৎপাদনে দেশে সারের যে চাহিদা রয়েছে তা মিটবে এবং ভালো ফসল উৎপাদন করা সম্ভব হবে। এতে বছরে অন্তত ৯ কোটি ২৪ লাখ মেট্রিন টন সার উৎপাদন সম্ভব হবে বলে আশা করছে সরকার। একইসঙ্গে শিল্প কারখানাগুলোতে নির্বঘ্ন উৎপাদন নিশ্চিত করতে নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস ও বিদ্যুৎ সরবরাহের সুপারিশ করে কমিটি।  

সংসদ ভবনে রবিবার অনুষ্ঠিত শিল্প মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে এসব তথ্য জানানো হয়। বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন কমিটির সভাপতি আমির হোসেন আমু। শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার, এ কে এম ফজলুল হক, হাবিবুর রহমান মোল্লা, মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান, কাজিম উদ্দিন আহম্মেদ এবং পারভীন হক সিকদার বৈঠকে অংশ নেন। 

বৈঠকের কার্যপত্র থেকে জানা যায়, বৈঠকে মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয় ঘোড়াশাল সার কারখানা ও পলাশ সার কারখানা এ দুটি আলাদা থাকায় উৎপাদন কম হচ্ছে। উৎপাদন বাড়াতে এই কারখানা দু’টি একত্রিত করা হবে। এজন্য সরকারের ব্যয় হবে ১০,৪৬,০৯১ লক্ষ টাকা। সরকার চাইছে, দুটি সার কারখানাকে একত্রিত করা হলে বর্তমানের চেয়ে অধিক উৎপাদন ক্ষমতা বাড়বে। 

সংসদের গণসংযোগ বিভাগ জানায়, শিল্প কারখানাগুলোতে নির্বঘ্ন উৎপাদন নিশ্চিত করতে নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস ও বিদ্যুৎ সরবরাহের সুপারিশ করে কমিটি।  সার বিতরণ ব্যবস্থাপনা সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা হয়। 

বিডি-প্রতিদিন/১৯ মে, ২০১৯/মাহবুব


আপনার মন্তব্য