Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ জুলাই, ২০১৯ ২০:৩৪

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট (সংশোধন) বিল পাস

নিজস্ব প্রতিবেদক

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট (সংশোধন) বিল পাস
ফাইল ছবি

চলচ্চিত্র ও টেলিভিশনের জন্য দক্ষ, যোগ্য কলাকুশলী ও নির্মাতা সৃষ্টির জন্য সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ডিগ্রী, কারিগরি প্রশিক্ষণ প্রদান এবং গবেষণামূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করার বিধান রেখে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট (সংশোধন) বিল-২০১৯ সংশোধিত আকারে পাস করেছে সংসদ।

ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বি মিয়ার সভাপতিত্বে সংসদের আজকের বৈঠকে বিলটি পাস হয়। বিলটি পাসের প্রস্তাব করেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

বিলে বিদ্যমান আইনের ধারা ৬ এর ১ উপ-ধারা দফা (ড) এর পরিবর্তে নতুন (ড) দফা প্রতিস্থাপন করে ইনস্টিটিউটের গভর্নিং বডিতে ১ জন শিক্ষক ও ১ জন চলচ্চিত্র নির্মাতাসহ অন্যূন ৪ থেকে ৬ জন চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্ট বরেণ্য ব্যক্তিত্বকে অন্তর্ভুক্ত করার বিধান রাখা হয়। এ বিষয়ে বোর্ডে নারী ও গণমাধ্যম প্রতিনিধি অর্ন্তভুক্ত করতে বিরোধী দলের সদস্য ফখরুল ইমামের আনা একটি সংশোধনী গ্রহণ করা হয়। এছাড়া বিলে গভর্নিং বোর্ডের সদস্যদের মেয়াদ ৩ বছরের পরিবর্তে ২ বছর করা করা হয়।

এছাড়া বিলে চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন সংশ্লিষ্ট শিক্ষা ও প্রশিক্ষণের ক্ষেত্র আরও বিস্তৃত করার বিধান করা হয়েছে।

এরআগে বিলের ওপর জনমত যাচাই-বাছাই কমিটিতে প্রেরণ এবং সংশোধনী প্রস্তাব আনেন বিরোধী দল জাতীয় পার্টির মুজিবুল হক, পীর ফজলুর রহমান, বেগম রওশন আরা মান্নান, বিএনপির হারুনুর রশীদ, মোশাররফ হোসেন, বেগম রুমিন ফারহানা ও গণফোরামের মোকব্বির খান। একটি সংশোধনী গ্রহীত হয়। অপর প্রস্তাবগুলো কন্ঠ ভোটে নাকচ হয়ে যায়।

বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট (সংশোধন) আইন-২০১৩ সংশোধনপূর্বক বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট (সংশোধন) বিল-২০১৯ প্রণয়ন করা প্রযোজন। চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন অনুষ্ঠান নিমার্ণে দক্ষ, যোগ্য কলাকুশলী ও নির্মাতা সৃষ্টির জন্য সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ডিগ্রী, কারিগরি প্রশিক্ষণ প্রদান এবং গবেষণামূলক কর্মকাণ্ড পরিচালনা করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট (সংশোধন) আইন-২০১৯ প্রণয়ন করার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।

বিডি প্রতিদিন/মজুমদার

 


আপনার মন্তব্য