শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৫:৪৭
আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ১৯:১৪

রক্ত জোগাড়ের নামে গৃহবধূকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত দু'জনকে ৭ দিনের রিমান্ড

অনলাইন ডেস্ক

রক্ত জোগাড়ের নামে গৃহবধূকে ধর্ষণ, অভিযুক্ত দু'জনকে ৭ দিনের রিমান্ড
প্রতীকী ছবি

রাজধানীতে মুমূর্ষু স্বামীর জন্য রক্ত জোগাড় করতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় র‌্যাবের হাতে আটক ধর্ষক মো. মনোয়ার হোসেন ওরফে সজীব (৪৩) এবং ধর্ষণে সহায়তাকারী মাশনু আরা বেগম ওরফে শিল্পীকে (৪০) ৭ দিনের রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

আজ রবিবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবদাস দাস অধিকারী এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে গত শনিবার অভিযুক্ত দু’জনকে গ্রেফতার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-২। তাদের আদালতে হাজির করে সাতদিনের রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মিরপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) তপন কুমার বিশ্বাস। শুনানি শেষে বিচারক দু’দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার বিকেল ৪টার দিকে ভুক্তভোগী নারী অসুস্থ স্বামীকে নিয়ে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে মেডিসিন বিভাগের ভর্তি করান। দায়িত্বরত চিকিৎসক স্বামীর জন্য রক্ত প্রয়োজন এবং জরুরিভাবে রক্তের ব্যবস্থা করার পরার্মশ দেন।

ভুক্তভোগী নারী হাসপাতালের দ্বিতীয় তলার ব্লাড ব্যাংকের সামনে গিয়ে তিন-চারজন পুরুষকে বসা দেখতে পেয়ে রক্তের বিষয়ে জানতে চাইলে মনোয়ার হোসেন ওরফে সজীব রক্তের ব্যবস্থা করে দেবেন বলে জানান। পরে ওই দিন দুপুর দেড়টার দিকে কৌশলে রক্তের ব্যবস্থা করে দেয়ার নাম করে মিরপুরে শিল্পীর বাসায় নিয়ে যান। ওই বাসায় নিয়ে শিল্পীর সহযোগিতায় তাকে ধর্ষণ করে মনোয়ার।

ভুক্তভোগী নারী লোকলজ্জার ভয়ে ও স্বামীর অসুস্থতার কারণে ধর্ষণের বিষয়টি গোপন রাখেন। এরপর আবার ২৪ সেপ্টেম্বর ভিকটিমের স্বামীর মোবাইলে কল করে রক্তের ব্যবস্থা হয়েছে জানিয়ে ভিকটিমকে আবার যেতে বলে। তখন দ্বিতীয়বার ধর্ষণের ভয়ে স্বামীকে বিষয়টি জানালে তারা র‌্যাবের কাছে অভিযোগ করেন। 

বিডি-প্রতিদিন/শফিক


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর