শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১২ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ অক্টোবর, ২০১৯ ০১:৫৬

ক্ষমতাসীনরা বিরোধী মতের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে : মওদুদ

নিজস্ব প্রতিবেদক

ক্ষমতাসীনরা বিরোধী  মতের ওপর নির্যাতন  চালাচ্ছে : মওদুদ

সারা দেশে ‘টর্চার সেল’ স্থাপন করে ক্ষমতাসীন ছাত্রলীগ বিরোধী মতের ওপর নির্যাতন চালাচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। গতকাল জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের উদ্যোগে আবরার ফাহাদ হত্যার প্রতিবাদে এক সমাবেশে তিনি এই অভিযোগ করেন।

ব্যারিস্টার মওদুদ বলেন, গত ১০ বছরে প্রত্যেকটি ডরমেটরিতে, প্রত্যেকটি হলে, প্রত্যেকটি ছাত্রাবাসে, ছাত্রীবাসে সারা দেশে তাদের (ক্ষমতাসীন) একটা টর্চার সেল আছে। সেখানে টর্চার সেলে নিয়ে যারা বিরোধী দল বা বিরোধী মতের ছাত্র-ছাত্রী তাদের ওপর নির্যাতন করা হয়। একইভাবে বুয়েটে  শেরেবাংলা হলের ২০১১ নম্বর কক্ষে আবরারকে মৃত্যুবরণ করতে হয়েছে।

 পাঁচ ঘণ্টা ধরে আবরার ফাহাদের ওপর যে রকমের নিপীড়ন করা হয়েছে সেটা মর্মান্তিক, মনুষ্যত্ববিহীন। এই ধরনের ঘটনা বাংলাদেশের মানুষ এখন আর সহ্য করতে চায় না।

সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদের নেতা সাংবাদিক রুহুল আমিন গাজী ও সদস্যসচিব অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেনের পরিচালনায় সমাবেশে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, অধ্যাপক আবদুল কুদ্দুস, অধ্যাপক এ বি এম ওবায়দুল ইসলাম, অধ্যাপক শামসুল আলম, অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম বাচ্চু, অধ্যাপক লুৎফর রহমান, সাংবাদিক এম আবদুল্লাহ, কাদের গনি চৌধুরী, শহিদুল ইসলাম, কৃষিবিদ শামীমুর রহমান শামীম, অ্যাডভোকেট আবেদ রাজা, রফিকুল ইসলাম প্রমুখ বক্তব্য দেন।

সাবেক আইনমন্ত্রী মওদুদ বলেন, বাংলাদেশের মানুষ এই সরকারকে আর ক্ষমতায় দেখতে চায় না। দেশে শান্তি ফিরে আসুক, নৈরাজ্য দূর হোক, আইনের শাসন ফিরে আসুক, সংবাদপত্রের স্বাধীনতা ফিরে আসুক এবং বিচার বিভাগের স্বাধীনতা ফিরে আসুকÑ এটাই বাংলাদেশের মানুষের প্রত্যাশা। এই অবস্থার বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

তিনি বলেন, ফেনী নদীর পানি প্রতি সেকেন্ডে ৫০ লিটার যাবে, প্রতি চব্বিশ ঘণ্টায় যাবে ৪ লাখ লিটার। এই পানি আমাদের এমনিতেই প্রয়োজন, আমাদের শুষ্ক মৌসুমে পানি থাকে না। কিন্তু সেই পানি দিয়ে আসলেন এবং তিনি বললেন যে, বাংলাদেশের কোনো স্বার্থ তিনি বিক্রি করে আসেননি। চট্টগ্রাম ও মোংলা বন্দরের ব্যবহার, উপকূলে রাডার সিস্টেম ভারতকে  দেওয়ার অনুমতিÑ এসব কিছু আমাদের সার্বভৌমত্বকে বিক্রি করার শামিল বলে আমি মনে করি।

মওদুদ বলেন, আজকে এই সরকার দেশে আইনের বৈষম্য সৃষ্টি করছে। সম্রাটের চিকিৎসা দুই দিনের মধ্যে হাসপাতালে আর আমার নেত্রী খালেদা জিয়া তিনবার জনগণের ভোটে নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী; এখন পর্যন্ত উপযুক্ত চিকিৎসা পাচ্ছেন না। তাকে অবহেলিতভাবে পিজি হাসপাতালের একটা ছোট্ট কেবিনে রাখা হয়েছে। গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে হলে বেগম জিয়াকে মুক্ত করতে হবে, এই মুক্তি আসতেই হবে।


আপনার মন্তব্য