শিরোনাম
প্রকাশ : ১১ আগস্ট, ২০২০ ০৯:৩৬
আপডেট : ১১ আগস্ট, ২০২০ ১২:৩৫

জেগে উঠছেন নিউইয়র্কের প্রবাসীরা

লাবলু আনসার, যুক্তরাষ্ট্র

জেগে উঠছেন নিউইয়র্কের প্রবাসীরা
বিবাহোত্তর সংবর্ধনার একটি মুহূর্ত

করোনায় বিধ্বস্ত নিউইয়র্ক সিটির প্রবাসীরা ধীরে ধীরে জেগে উঠছেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই স্বাভাবিক জীবনে ফেরার অংশ হিসেবে গত রোববার বিবাহোত্তর প্রীতিভোজ অনুষ্ঠিত হলো। মার্চের মাঝামাঝিতে সবকিছু লকডাউনে যাবার পর সম্ভবত এই প্রথম ঘটা করে প্রবাসীরা একটি চমৎকার পার্টিতে মিলিত হলেন। শিশুরাও ছিল উৎফুল্ল।

নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে ‘ইটসজি’ নামক একটি চায়নিজ রেস্টুরেন্টের ব্যাকইয়ার্ডে খোলা জায়গায় চেয়ার-টেবিল বসিয়ে সিলেট ও চাঁদপুরের প্রবাসীরা জড়ো হন নূরে জান্নাত সায়মা এবং মিনহাজ মিতুলের বিবাহোত্তর প্রীতিভোজে। টানা ৫ মাস পর সকলেই নতুন পোশাকে পরে এক আমেজ তৈরি করেছিলেন। 

প্রিয়-পরিচিতজনরা পুনরায় একত্রিত হতে পেরে বিষন্নতার ছাপ দূরে সরিয়ে রাখতেও সচেষ্ট ছিলেন। তবে আলোচনার কেন্দ্রে ছিল কুশলাদি বিনিময়ের। করোনায় যারা মারা গেছেন, তাদের জন্যেও গভীর শোক উচ্চারিত হয় আনন্দঘন এই আয়োজনে। 

গত জুন-জুলাইতে ডজনখানেক বিয়ের কর্মসূচি ছিল। সংশ্লিষ্টরা বিলাসবহুল হোটেলের বলরুম ভাড়াও করেছিলেন। কেউ কেউ দাওয়াতপত্র আগেই বিতরণ করেন। কিন্তু সবকিছু পণ্ড হয়ে গেছে করোনা ভীতিতে। এমনকি, হলরুম বুকিংয়ের জন্যে আগাম যে অর্থ দেওয়া হয়েছিল সেগুলোও ফেরত পাননি কেউই। 

হোটেল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, ভবিষ্যতে সময় ভালো হলে অন্য কোনো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সে অর্থের সমন্বয় ঘটানো হবে। নিউইয়র্ক অঞ্চলে করোনার সংক্রমণ আশাব্যঞ্জকভাবে কমে যাওয়ায় ঝুলে থাকা বিয়ের অনুষ্ঠানগুলো সেপ্টেম্বরের মধ্যেই সম্পন্ন করার কথা ভাবছেন অভিভাবকেরা। 

প্রসঙ্গত : নিউইয়র্ক সিটিতে করোনায় মৃত্যুবরণকারী ২৩ হাজার ৫৮০ জনের মধ্যে আড়াই শতাধিকের মতো বাংলাদেশিও রয়েছেন। আক্রান্ত ২ লাখ ৩৩ হাজারের মধ্যে ৫ সহস্রাধিক প্রবাসী ছিলেন। 

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর