শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ১৯ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৮ মার্চ, ২০১৯ ২৩:০২

সেরা তালিকায় তিন টাইগার

ক্রীড়া প্রতিবেদক

সেরা তালিকায় তিন টাইগার

সার্চ সংখ্যা, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনুসারীর সংখ্যা ও আয় এই তিনটি বিষয়কে সামনে রেখে ইএসপিএন ২০১৯ সালে বিশ্বের সেরা ১০০ জন ক্রীড়াবিদের নাম প্রকাশ করেছে। সেই তালিকায় স্থান পেয়েছেন বাংলাদেশের তিন ক্রিকেটার টেস্ট ও টি-২০ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান, মিস্টার ডিপেন্ডেবল মুশফিকুর রহিম ও ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা। সাকিবের অবস্থান ৯০, মুশফিকের ৯২ আর মাশরাফির ৯৮। এবারই প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের ক্রীড়াবিদরা এই তালিকায় সুযোগ পেয়েছেন।

এ তালিকায় সবার উপরে রয়েছেন পর্তুগিজ ও জুভেন্টাসের সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। দুইয়ে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের বাস্কেটবল তারকা লেব্রন জেমস। তিনে রয়েছেন আর্জেন্টিনা ও বার্সেলোনার তারকা ফুটবলার লিওনেল মেসি। চারে রয়েছেন ব্রাজিলীয় তারকা নেইমার। বাংলাদেশের ক্রিকেটার ছাড়াও ভারতের বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার সুযোগ পেয়েছেন। সাত নম্বরে আছেন ভারতের সুপারস্টার বিরাট কোহলি। একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে তিনি এই তালিকার সেরা ১০-এ জায়গা করে নিয়েছেন। এছাড়া অন্য ক্রিকেটারদের মধ্যে আছেন, মহেন্দ্র সিং ধোনি (১৩), যুবরাজ সিং (১৮), সুরেশ রায়না (২২), রোহিত শর্মা (৪৬), রবিচন্দ্রন অশ্বিন (৪২), হরভজন সিং (৭৪) ও শিখর ধাওয়ান (৯৪)। ৭৮টি  দেশের প্রায় ৮০০ ক্রীড়াবিদের মধ্য থেকে এই তালিকা করা হয়েছে।

তালিকা অনুযায়ী, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো সার্চ ১০০, তার আয় দেখানো হয়েছে ৩৭ মিলিয়ন পাউন্ড এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ফলোয়ারের সংখ্যা ১৪৮ মিলিয়ন। জুভেন্টাস তারকার চেয়েও অনেক বেশি আয় মার্কিন বাস্কেটবল তারকা লেব্রন জেমসের। তার আয় দেখানো হয়েছে ৫২ মিলিয়ন ডলার। কিন্তু সার্চ সংখ্যা (৪৭) ও ফলোয়ার সংখ্যা (৪৫.৩ মিলিয়ন) কম তার। লিওনেল মেসির আয় ২৮ মিলিয়ন ডলার। সার্চ সংখ্যা ৫৪ এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ফলোয়ারের সংখ্যা ১০৩.১ মিলিয়ন।  তবে আয়ের দিক থেকে মেসির চেয়ে একটুখানি পিছিয়ে থাকলেও ব্রাজিলীয় তারকা নেইমারের সার্চ সংখ্যা ও ফলোয়ার সংখ্যা বেশি। সাকিব আল হাসানের আয় দেখানো হয়েছে ৬.৯৮ মিলিয়ন ডলার। সার্চ সংখ্যা মাত্র ১, আর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্য ফলোয়ার ১০.৭ মিলিয়ন। মুশফিক ও মাশরাফির সার্চ সংখ্যা ও আয় সমান। সার্চ সংখ্যা ১ এবং আয় ৭.৫৭ মিলিয়ন ডলার। তবে মাশরাফির চেয়ে মুশফিকের ফলোয়ার সংখ্যা বেশি। মুশি ৯.১ মিলিয়ন এবং ম্যাশ ৮.৫ মিলিয়ন।


আপনার মন্তব্য