শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ২৪ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ জানুয়ারি, ২০২০ ২৩:৩৮

শ্রীলঙ্কার ১০ উইকেটে জয়

শ্রীলঙ্কার ১০ উইকেটে জয়

ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস। লঙ্কান তারকার দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে জিম্বাবুয়েকে ১০ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে তার দল।  শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট ইতিহাসে সর্বশেষ ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ড ৫ বছর আগে, ২০১৫ সালে সাঙ্গাকারা।

 সাবেক অধিনায়কের বিদায়ের পর শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যানরা সেই পথেই হাঁটেনি অবশেষে সেই খরা দূর করেছেন সাবেক অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলি ম্যাথিউস। তাও আবার পাঁচ বছর পর। ম্যাথিউস ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন সিমিং অলাউন্ডার হিসেবে। একসময় তাকে ভাবা হতো জ্যাক ক্যালিস, ইমরান খান, কপিল দেব, ইয়ান বোথামদের উত্তরসূরি হিসেবে। অথচ ইনজুরির কাছে হেরে ম্যাথিউস এখন শুধুই ব্যাটসম্যান। দ্বীপরাস্ট্রে খেলছেন একজন ব্যাটসম্যান হয়ে। গতকাল হারারেতে পাঁচ বছর শ্রীলঙ্কান ক্রিকেট ইতিহাসে ডাবল সেঞ্চুরি করেছেন তিনি। তার ক্যারিয়ার সেরা ব্যাটিংয়ে উজ্জ্বল টেস্টটি অবশ্য এখন ড্রয়ের পথে। প্রথম ইনিংসে স্বাগতিক জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ ছিল ৩৫৮ রান। ম্যাথিউসের অপরাজিত ২০০ রানে ভর করে সফরকারী শ্রীলঙ্কা ইনিংস ঘোষণা করে ৯ উইকেটে ৫১৫ রান তুলে। ১৪৭ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে স্বাগতিকদের সংগ্রহ বিনা উইকেটে ৩০ রান। ম্যাথিউস ৮৫ টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল সেঞ্চুরি করেন ৪৬৮ বলে। ক্যারিয়ারের প্রথম ডাবল হলেও সেঞ্চুরির হিসেবে ১০ নম্বর। ম্যাথিউসের আগে ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ছিল ১৬০ রান। দ্বীপরাস্ট্রের হয়ে সর্বশেষ ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন সাঙ্গাকারা ২০১৫ সালে ওয়েলিংটনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে।             

সংক্ষিপ্ত  স্কোর :

জিম্বাবুয়ে : প্রথম ইনিংস, ৩৫৮ ও দ্বিতীয় ইনিংস, ৩০/০

শ্রীলঙ্কা : প্রথম ইনিংস, ৫১৫/৯ (ডি.), ১৭৬.২ ওভার (ম্যাথিউস ২০০*, ধনাঞ্জয়া ৬৩, ডিকভেলা ৬৩। নিয়াওচি ৩/৬৯, তিরিপানো ১/৮২, উইলিয়ামস ২/১০৪, রাজা ৩/৬২)।

 


আপনার মন্তব্য