শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩১ মার্চ, ২০২০ ০০:০৩

রুটের খোলা চিঠি

ঘরে থাকুন, জীবন বাঁচান

‘ঘরে থাকুন, জীবন বাঁচাতে সাহায্য করুন। যদি বাইরে যেতেই হয়, তবে নিতান্ত প্রয়োজনীয় দ্রবাদির জন্য কিংবা ওষুধের জন্য যান। অনুশীলন করতে হলে ঘরে একা একা করুন।’

ক্রীড়া ডেস্ক

ঘরে থাকুন, জীবন বাঁচান

ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুট তার ভক্তদের উদ্দেশ্যে খোল চিঠি লিখেছেন। সেখানে তিনি করোনাভাইরাস মহামারী থেকে রক্ষার জন্য সবার সহযোগিতা চেয়েছেন। ইংলিশ দলপতি বলেন, ‘ঘরে থাকুন, জীবন বাঁচাতে সাহায্য করুন।

যদি বাইরে যেতেই হয়, তবে নিতান্ত প্রয়োজনীয় দ্রবাদির জন্য কিংবা ওষুধের জন্য যান। অনুশীলন করতে হলে ঘরে একা একা করুন।’

রুটের চিঠিটি আবেগ দিয়ে লেখা, ‘আজ আমার মাঠে থাকার কথা। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টেস্টে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার কথা। আজ যুক্তরাজ্য জুড়ে ক্রিকেট ভক্তরা তাদের ক্লাবের প্রচারণার জন্য নেটে ঢুকতে নিশপিশ করত, ম্যাচ জেতার মুহূর্তের স্বপ্ন দেখত কিংবা কেবল সতীর্থদের সঙ্গে খেলত অথবা আমরা যে খেলাটা পছন্দ করি স্থানীয় মাঠে সেটা দেখত।

কিন্তু আজ এটা পুরোপুরি ভিন্ন। আমরা জানি, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব জীবন ও ক্রিকেটকে থমকে দিয়েছে, আমাদের দৃষ্টিকোণকে তীক্ষ্ম করছে ও প্রকৃত নায়কদের প্রদীপের আলোয় আনছে।’

যতই দিন যাচ্ছে যুক্তরাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছে মোট ১৯ হাজার ৫২২ জন। এর মধ্যে মারা গেছে ১ হাজার ২২৮ জন। দেশের মানুষ উদ্বেগ-উৎকণ্ঠার মধ্যে দিন কাটাচ্ছে। এমন সময় রুটের চিঠি। জনগণের উদ্বেগের বিরুদ্ধে সামনে এনে বলেন, ‘সম্ভবত আপনি ভালোবাসার কাউকে হারিয়েছেন, অসুস্থ কাউকে নিয়ে অথবা নিজের অসুস্থতা নিয়ে ভয়ে আছেন। সম্ভবত আপনি পরিবার ও বন্ধুবান্ধব নিয়ে দুশ্চিন্তা করছেন ও ভবিষ্যতে কি আছে, এটা নিয়ে উদ্বিগ্ন।’

রুট বলেন, ‘টিমওয়ার্ক আমাদের সমাজে এর আগে কখনও এতো গুরুত্বপূর্ণ ছিল না। সামাজিক দূরত্ব মানে এটা হতে পারে আমরা একত্রে শারীরিক সংস্পর্শে আসতে পারব না, কিন্তু আমাদের শক্তি নিহিত সম্প্রদায়ের মধ্যে একত্রে একে অপরকে সাহায্য করার মধ্যে।’

‘মানুষ করেছে এমন অনেক অবিশ্বাস্য গল্প আমি শুনেছি, আমার অঞ্চলে, দূরের কাউন্টিতে ও দেশ পেরিয়ে, যা আমার মুখে হাসি ফুটিয়েছে।’

চিঠিতে তিনি আরও লিখেছেন, ‘গত গ্রীষ্মের বিশ্বকাপ জয় একটি বিশেষ মুহূর্ত ছিল, যা আমার মধ্যে সারা জীবন বেঁচে থাকবে। এই মহামারী আমাদের দেখিয়েছে, সবচেয়ে বড় অভিনন্দন কাদের প্রাপ্য।

মহামারীর এই সময়ে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন ডাক্তার-নার্স, সংবাদকর্মীসহ আরও বেশ কিছু পেশার মানুষ। তাদেরকে ধন্যবাদ দিয়েছেন তিনি। রুট বলেন, ‘যারা এই প্রয়োজনে সামনের সারিতে থেকে কাজ করছেন, যারা জীবনের প্রয়োজনীয় সামগ্রী সমন্বয় ও বিতরণ করছেন এবং যারা এখন পর্যন্ত অঘোষিত নায়ক, তাদেরকে আমার পক্ষ থেকে স্যালুট।’

কিছু দিন আগেই শ্রীলঙ্কা সফরে এসেছিল ইংল্যান্ড দল। কিন্তু করোনা আতঙ্কে তারা সফর স্থগিত করে দ্রুত দেশে ফিরে যান। ঠিক সময়ে পরিবারের কাছে পৌঁছাতে পেরে নিজেদের ভাগ্যবান মনে করছেন এই ইংলিশ অধিনায়ক। তিনি বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা সফর সময় মতোই স্থগিত হয়েছে। সত্যিই আমরা খুবই ভাগ্যবান। ঠিক সময় মতোই পরিবারের অন্য সদস্যের কাছে পৌঁছে গেছি।’

রুটের বিশ্বাস, এই খারাপ সময়টা দ্রুতই কেটে যাবে। তবে এই পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য সবাইকে দায়িত্ব আচরণ করতে হবে। এর আগে টুইটারে তিনি সবার মঙ্গল কামনা করে লিখেছিলেন, ‘আমার বিশ্বাস এই মহামারী থেকে আমরা দ্রুতই মুক্তি পাব। সামনে খুবই ভালো সময় আসছে।’


আপনার মন্তব্য