শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২৩:৩০

জেতা ম্যাচ ড্র করল শেখ জামাল

ক্রীড়া প্রতিবেদক

জেতা ম্যাচ ড্র করল শেখ জামাল

অভিজ্ঞ ও তারুণ্য মিশ্রণে শেখ জামাল ধানমন্ডি ভালোভাবেই এগিয়ে যাচ্ছিল। টানা চার ম্যাচে জিতে অপ্রতিরোধ্য গতিতে ছুটছিল সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। এমনকি শক্তিশালী প্রতিপক্ষ সাইফ স্পোর্টিংয়ের বিপক্ষে ২ গোলে পিছিয়ে থেকেও বিজয় নিশানা উড়িয়েছে তারা। ঢাকা আবাহনীর বিপক্ষে জেতা ম্যাচ ড্র করেই যেন চেনা ছন্দ হারিয়ে ফেলেছে ওমর জোবে, সুলেমান সিল্লাহ, সুলেমান কিংরা। এখন পর্যন্ত তারা অপরাজিত। কিন্তু আবাহনী, বসুন্ধরা, উত্তর বারিধারা ও পুলিশের বিপক্ষে টানা চার ড্রয়ে মূল্যবান ৮ পয়েন্ট হারিয়ে বসেছে এখনই। যে দল জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ছিল হঠাৎ করে তাদের এ কেমন ছন্দপতন। আগের ম্যাচে ১-৩ গোলে পিছিয়ে থেকেও শেষ মুহূর্তে জোবের চোখ ধাঁধানো জোড়া গোলে ৩-৩ ড্র করে। গতকাল পেশাদার ফুটবল লিগে তাদের প্রতিপক্ষ ছিল পুলিশ এফসি। শক্তির বিচারে জামালই ছিল পরিষ্কার ফেবারিট। অথচ ফিরতে হলো ৩-৩ ড্র করে। অবিশ্বাস্য ঘটনাই বলা যায়। তিনবার এগিয়ে যান মানিকের শিষ্যরা। শেখ জামালে ওমর জোবে, ওতাবেক, সোলেমান কিং এবং পুলিশের মুরোলিম, ফ্রেডারিক ও জুয়েল গোলগুলো করেন। প্রথমটি না হলে চলে। কিন্তু শেখ জামালের মতো দল বার বার এগিয়ে গিয়েও জয় বঞ্চিত হবে তা ট্র্যাজেডি ছাড়া আর কি হতে পারে?

১০ মিনিটে এগিয়ে যায় সুলেমানরা। গোলদাতা সেই ওমর জোবেই। সতীর্থ সিল্লাহর কাছ থেকে বল পেয়ে ঠান্ডা মাথায় তিনি জালে বল পাঠান। ৩৫ গজ দূর থেকে পুলিশের সমতা ফেরাটা ছিল চোখে পড়ার মতো। কিরগিজ মুরোলিম জনের ফ্রি কিক থেকে সরাসরি গোল। যা লিগের অন্যতম সেরাই বলা যায়। ৪০ মিনিটে ওতাবেক ব্যবধান ২-১ করলে মনে হচ্ছিল প্রথমার্ধটা শেষ হবে জামালের এগিয়ে থাকাতে। অথচ যোগ করা সময়ে ডিফেন্ডারদের ভুলে ফ্রেডারিক সমতা ফেরান। ৪৯ মিনিটে সলোমন কিং ৩-২ ব্যবধানে এগিয়ে রাখেন। নাটকের পর্দা নামে জুয়েলের সমতার গোলে। ৯ ম্যাচে ১৯ পয়েন্ট জামালের। শিরোপা দৌড়ে টিকে থাকাটা ঝুঁকি হয়ে গেল না?


আপনার মন্তব্য