শিরোনাম
বুধবার, ১২ জানুয়ারি, ২০২২ ০০:০০ টা

টেলরকে জয় উপহার

জয় দিয়ে ক্যারিয়ার শেষ করতে পারছি। সতীর্থরা আমাকে দারুণ এক মুহূর্ত এনে দিয়েছেন। ম্যাচটি ছিল আমার জন্য খুবই আবেগের। সতীর্থরা দুর্দান্ত পারফর্ম করে দেখিয়ে দিয়েছেন।

ক্রীড়া প্রতিবেদক

টেলরকে জয় উপহার

ক্রাইস্টচার্চে বাংলাদেশকে ইনিংস ও ১১৭ রানে হারিয়ে গ্রেট ব্যাটসম্যান রস টেলরকে বিদায়ী উপহার দিল নিউজিল্যান্ড। প্রথম ইনিংসে ৩৮৫ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাট করতে নামে বাংলাদেশ। লিটন দাসের সেঞ্চুরিতে ২৭৮ রান করে। তিন দিনেই ম্যাচ জিতে সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ করলো নিউজিল্যান্ড।

প্রথম টেস্টে হারার পরও বিদায়ী টেস্টে টেলরকে দুরন্ত এক জয় উপহার দিতে পারায় দারুণ খুশি অধিনায়ক টম লাথাম। তিনি বলেন, ‘প্রথম দিন থেকেই আমরা চমৎকার খেলেছি। প্রথম দিনের প্রথম ঘণ্টাটা ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা সেখানেও ভালো করেছি। আর বোলাররাও দুর্দান্ত দাপট দেখিয়েছেন। টেলরের মতো এক গ্রেট ক্রিকেটারের শেষ ম্যাচে এমন একটি জয় খুবই দরকার ছিল।’

তিন ইনিংস খেলে তিন সেঞ্চুরি করে সিরিজসেরা হয়েছেন ডেভন কনওয়ে। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘টেলর আমার কাছে খুবই গুরুত্বপূর্ণ এক ব্যক্তিত্ব। তিনি একশর উপরে ম্যাচ টেস্ট খেলেছেন। নিউজিল্যান্ডের জন্য অনেক অবদান রেখেছেন। তার বিদায়ী সিরিজে অবদান রাখতে পেরে খুবই ভালো লাগছে।’

রস টেলর নিজেও আপ্লুত। নিউজিল্যান্ডের হয়ে তিনি রেকর্ড ৭,৬৮৩ রান করেছেন। শেষ ম্যাচে জিতে যাওয়ায় আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলেন। রস টেলর বলেন, ‘জয় দিয়ে ক্যারিয়ার শেষ করতে পারছি। সতীর্থরা আমাকে দারুণ এক মুহূর্ত এনে দিয়েছেন। ম্যাচটি ছিল আমার জন্য খুবই আবেগের। সতীর্থরা দুর্দান্ত পারফর্ম করে দেখিয়ে দিয়েছেন।’

টেস্ট ক্রিকেট থেকে বিদায় নেওয়ার দিনে টেলরের পুরো পরিবার মাঠে উপস্থিত হয়েছিলেন। তাদের সঙ্গে মাঠে টেস্ট ক্যারিয়ারের সেই দিনটি দারুণভাবে উদযাপন করেন টেলর। তিনি বলেন, ‘পরিবারের কাছ থেকে আমি সবসময় অনুপ্রেরণা পেয়েছি। আমাকে তারা মানসিকভাবে সমর্থন করেছেন বলেই আজ আমি এ অবস্থায় আসতে পেরেছি।  নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট দলকে ধন্যবাদ আমার পাশে থাকার জন্য।

এই ম্যাচটি আরও একটি কারণে স্মরণীয় হয়ে থাকবে টেলরের কাছে। গতকাল বাংলাদেশের শেষ উইকেটটি যে তিনিই নিয়েছেন। ইবাদত হোসেন আউট হয়েছেন তার বলেই। একজন গ্রেট ব্যাটসম্যান টেস্টকে বিদায় জানালেন উইকেট শিকার করে।

 

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর