শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ মার্চ, ২০২১ ১৭:৩৮
প্রিন্ট করুন printer

নিউজিল্যান্ডে কোয়ারেন্টিন শেষে অনুশীলন টাইগারদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

নিউজিল্যান্ডে কোয়ারেন্টিন শেষে অনুশীলন টাইগারদের
সংগৃহীত ছবি

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে অনুষ্ঠিতব্য সিরিজ আগামী ১৩ মার্চ মাঠে গড়ানোর কথা থাকলেও করোনা সংক্রান্ত ঝামেলার কারণে ২০ মার্চ পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। তিন ওয়ানডে ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে যথাক্রমে ২০, ২৩ এবং ২৬ মার্চে। 

এদিকে, সিরিজ সামনে রেখে দেশটিতে কঠোর কোয়ারেন্টিনে থাকার পর অবশেষে মুক্তি মিলেছে বাংলাদেশ দলের। শুরু হয়ে গেছে দলীয় অনুশীলনও। বৃহস্পতিবার দলীয় অনুশীলন করেছে বাংলাদেশ দল।  

অনুশীলনে ফিরতে ফিরে স্বাভাবিকভাবেই দলের সবাই খুশি। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে মুশফিকুর রহিম উইকেটের পাশে দাঁড়িয়ে হাসিমুখে ‘থামস আপ’ দেখিয়ে লিখেছেন, ‘৮ দিন কোয়ারেন্টিনের পর দারুণ সেশন হলো।’ 

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নিউজিল্যান্ডে পা রাখে টাইগাররা। এরপর টানা ৮ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হয় পুরো দলকে। যার সঙ্গে জেলবন্দি থাকার তুলনা করেছিলেন অলরাউন্ডার মেহেদি হাসান মিরাজ। 

ক্রাইস্টচার্চের লিঙ্কন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিশেষায়িত মাঠে চারটি গ্রুপে ভাগ হয়ে আলাদা সময়ে অনুশীলন করেছেন মুশফিক-তামিমরা। প্রতি গ্রুপে ৫ জন ক্রিকেটার ও ২ জন করে সাপোর্ট স্টাফ ছিলেন। মাঠে অনুশীলনের জন্য প্রতি গ্রুপের জন্য ২ ঘণ্টা করে বরাদ্দ রাখা হয়েছিল। তবে এখনও কোয়ারেন্টিন শেষ হয়নি। ফলে আগামী ৭ দিন এভাবেই গ্রুপ করে চলবে অনুশীলন। এরপর কুইন্সতাউনে ৫ দিনের ক্যাম্পে পুরো দল মিলে অনুশীলন চলবে।  

প্রথম দিনের অনুশীলন হয়েছে মূলত ফিল্ডিং নিয়ে। অনুশীলন শেষে বিসিবির পাঠানো এক ভিডিও বার্তায় অলরাউন্ডার মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন এমনটাই জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আজকের অনুশীলনে আমরা ফিল্ডিংয়ে বেশি জোর দিয়ে কাজ করেছি, শর্ট ক্যাচ, হাই ক্যাচ নিয়ে। এখানে কিন্তু আবহাওয়া ও বাতাসের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার ব্যাপার আছে। এ কারণেই ক্যাচিংয়ে জোর দিয়েছি। এরপর ছোট ছোট সেশনে ব্যাটিং ও বোলিং করেছি।’

ফিল্ডিংয়ের পর ফিটনেস নিয়েও কাজ হয়েছে বলে জানিয়েছেন সাইফউদ্দিন। এই ডানহাতি অলরাউন্ডার বলেন, ‘ফিল্ডিং নিয়ে কাজ করার পর ফিটনেস নিয়েও কাজ করেছি। কারণ ৭ দিন ফিটনেস নিয়ে কাজ করার সুযোগ ছিল কম। আজকে ট্রেনারের নির্দেশনা মেনে রানিং করেছি। এখন সামনে যে কয়দিন সুযোগ আছে আমরা নিজেদের মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করব।’

নিউজিল্যন্ডের মাটিতে এখন কোনো সংস্করণেই এখন পর্যন্ত জিততে পারেনি বাংলাদেশ। এবার সেই জয়খরা ঘোচাতে চায় তামিমের দল।

বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য