শিরোনাম
প্রকাশ : ২১ অক্টোবর, ২০২০ ১৪:১০
আপডেট : ২১ অক্টোবর, ২০২০ ১৪:১০

দুর্গা বেশে কমলা হ্যারিস, কার্টুন ঘিরে বিতর্ক

অনলাইন ডেস্ক

দুর্গা বেশে কমলা হ্যারিস, কার্টুন ঘিরে বিতর্ক
কমলা হ্যারিস

কমলা হ্যারিস, ভারতীয় বংশোদ্ভূত মার্কিন সেনেটর। আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রার্থী জো বাইডেনের রানিংমেট তিনি।

এবার ভারতজুড়ে বিতর্ক চলছে এই কমলা হ্যারিসের একটি কার্টুন নিয়ে।

কার্টুনে দেবী দুর্গার বেশে দেখা যাচ্ছে কমলা হ্যারিসকে। মহিষাসুররূপী ডোনাল্ড ট্রাম্পকে অস্ত্র দিয়ে বিঁধছেন তিনি। বাহনেও বৈচিত্র্য। সিংহের বদলে সেখানে শোভা পাচ্ছেন ডেমোক্র্যাটিক দলের প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী জো বাইডেনকে। ‘দুর্গতিনাশিনী কমলা’র এই ছবি ট্যুইটারে ছড়িয়ে পড়া মাত্র বিতর্ক ঘনিয়ে উঠেছে মার্কিন মুলুকে। সেই সঙ্গে বিতর্ক ছড়িয়ে পড়েছে ভারতজুড়েও।

সুপারইম্পোজ করা কার্টুনটি আপলোড করেন স্বয়ং কমলার ভাতিজি মীনা হ্যারিস। ৩৫ বছর  বয়সী মীনা পেশায় আইনজীবী। 

তবে প্রবল জনরোষে কিছুক্ষণ পরই টুইটটি মুছে দিতে বাধ্য হন তিনি। বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলেছে আমেরিকার একাধিক হিন্দু সংগঠন।

হিন্দু আমেরিকান ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে সুহাগ এ শুক্লা কমলার উদ্দেশে বলেন, “আপনি মুখ বদলে দেবী দুর্গার কার্টুন টুইট করছেন, যা দুনিয়াজুড়ে সমস্ত হিন্দু ধর্মের মানুষকে ব্যথিত করবে।”

এরপর ধর্ম সংক্রান্ত ছবি ব্যবহারের স্পষ্ট নির্দেশিকাও বাতলে দেন তিনি।

একইভাবে ক্ষোভ প্রকাশ করে হিন্দু আমেরিকান পলিটিক্যাল অ্যাকশন কমিটি এবং আমেরিকান হিন্দু এগেইনস্ট ডিফামেশন। পাশাপাশি লেখিকা শেফালি বৈদ্যও টুইট করেছেন, “ছবিটি অত্যন্ত অবমাননাকর। আমাদের দেবদেবী আপনার বিদ্রুপের সামগ্রী নয়। অথচ আপনি কোনওরকম ক্ষমা না চেয়েই টুইটটি ডিলিট করে দিলেন?” সূত্র: ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, ডিএনএ ইন্ডিয়া

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর