শিরোনাম
প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি, ২০২১ ২১:৫১
প্রিন্ট করুন printer

খুবির দুই শিক্ষার্থীর অনশন ভঙ্গ

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা:

খুবির দুই শিক্ষার্থীর অনশন ভঙ্গ

টানা সাতদিন পর খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) আন্দোলনরত দুই শিক্ষার্থীকে শরবত খাইয়ে অনশন ভঙ্গ করালেন উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েকউজ্জামান। মঙ্গলবার রাত আটটায় অনশন ভঙ্গ করার পর শিক্ষার্থীরা নিজ বাড়িতে ও হোস্টেলে ফিরে গেছেন। এর ফলে অনশন কর্মসূচিকে ঘিরে বিশ্ববিদ্যালয়ে অস্থিরতার অবসান হলো। 

জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যালামনাই এসোসিয়েশনের মধ্যস্ততায় মঙ্গলবার দুপুরে অনশনরত দুই শিক্ষার্থী উপাচার্য বরাবর নতুন আরেকটি চিঠি দিয়েছেন। ওই চিঠিতে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে পাঁচদফা আন্দোলন চলাকালে দুই শিক্ষকের পথরোধ ও অসদাচরনের ঘটনাকে অনিচ্ছাকৃত ও ওই ঘটনার সাথে তারা কেউ সংশ্লিষ্ট নয় বলে জানিয়েছেন। তারপরও ওই ঘটনায় শিক্ষকরা যদি কোন কষ্ট পেয়ে থাকেন তার জন্যও তারা আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এছাড়া সার্বিক ঘটনা বিবেচনায় বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করলে কৃতজ্ঞ থাকার কথা জানিয়েছে। এসব কারণে খুবি উপাচার্য মঙ্গলবার রাত ৮টায় অনশনস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থীদের অনশন ভঙ্গ করান। এসময় তিনি দ্রুত শৃঙ্খলা কমিটির সভায় শিক্ষার্থীদের বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের সবুজ সংকেত দেন। 

জানা যায়, ২০২০ সালের জানুয়ারিতে বেতন-ফি কমানো, আবাসন ব্যবস্থাসহ পাঁচদফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। ওই আন্দোলনে দুইজন শিক্ষকের পথরোধ করা ও অসদাচরনের অভিযোগে দুই শিক্ষার্থী ইমামুল ইসলাম ও মোবারক হোসেন নোমানকে বিভিন্ন মেয়াদে বহিষ্কার করা হয়। বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবিতে চলতি বছরের ১৯ জানুয়ারি থেকে প্রশাসনিক ভবনের সামনে আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করে ওই দুই শিক্ষার্থী। এর আগে ১৭ ও ১৮ জানুয়ারি তারা একই স্থানে আমরণ অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন।  

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর