১ জুলাই, ২০২১ ১৭:৩১

দ্বিতীয় মেয়াদে শাবিপ্রবি'র উপাচার্য হলেন অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ

শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি


দ্বিতীয় মেয়াদে শাবিপ্রবি'র উপাচার্য হলেন অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ

অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য হিসেবে দ্বিতীয় মেয়াদে নিয়োগ পেয়েছেন বর্তমান উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ। গতকাল বুধবার (৩০ জুন) রাষ্ট্রপতি ও আচার্যের অনুমোদনক্রমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের উপ-সচিব নূর-ই -আ আলম স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ আদেশ জারি করা হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, উপাচার্য হিসেবে তার নিয়োগের মেয়াদ চার বছর হবে এবং প্রথম মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার পর যোগদানের তারিখ থেকে তা কার্যকর হবে। তিনি তার বর্তমান পদের সমপরিমাণ বেতন-ভাতাদি পাবেন, বিধি অনুযায়ী পদ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সুবিধা ভোগ করবেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে সার্বক্ষণিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অবস্থান করতে হবে। 

এছাড়াও রাষ্ট্রপতি ও চ্যান্সেলর প্রয়োজনে যেকোনো সময় এ নিয়োগ বাতিল করতে পারবেন বলেও আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে। এর আগে, ২০১৭ সালে ১৭ আগস্ট উপাচার্য হিসেবে প্রথম নিয়োগ পান অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।

উপাচার্যের দায়িত্ব থাকাকালীন সময়ে তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের অবকাঠামো, শিক্ষা ও গবেষণার মান উন্নয়নে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের  শিক্ষার্থীদের সেশনজট ও র‍্যাগিং মুক্ত করার ক্ষেত্রে তিনি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন। 

দ্বিতীয় মেয়াদে আবারও উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ বাংলাদেশ প্রতিদিনকে বলেন, বরাবরের মত আমি সবসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা, নিয়মানুবর্তিতা ও জবাবদিহিতা বৃদ্ধির ব্যাপারে কাজ করে যাব। শাবিপ্রবি ইতিমধ্যে দেশের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য রোল মডেল হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আমি এ ধারা ভবিষ্যতেও অব্যাহত রাখবো। এক্ষেত্রে উপাচার্য সকলের আন্তরিক সহযোগিতা কামনা করেন। 

উল্লেখ্য, অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সংগঠন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের দুইবারের সভাপতি, চারবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি, পাঁচবার সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন এবং সিন্ডিকেট ও সিনেট সদস্যসহ বিভিন্ন প্রশাসনিক দায়িত্বে ছিলেন।  

 

বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর