Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ মে, ২০১৯ ০০:৪৮
আপডেট : ২৭ মে, ২০১৯ ০১:০৫

‘হঠাৎ বিকট শব্দ, এরপর দেখি রক্ত ঝরছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক

‘হঠাৎ বিকট শব্দ, এরপর দেখি রক্ত ঝরছে’

রাজধানীর মালিবাগ মোড়ে ককটেল বিস্ফোরণে (ট্রাফিক পূর্ব সবুজবাগ জোন) নারী এএসআই রাশেদা আক্তার ভাবলীসহ (২৮) আহত হয়েছেন দুইজন।

পরে গণমাধ্যমকে রাশেদা আক্তার ভাবলী জানান, ‌‌‘ডিউটি পালন করার সময় হঠাৎ বিকট শব্দ শুনতে পাই। এসময় সামনে থাকা পুলিশের গাড়িটিতে আগুন লাগে। এরপর দেখি আমার বাম পায়ের হাঁটুর নিচ থেকে রক্ত ঝরছে।’

ককটেল নাকি অন্য কোনো বোমা বিস্ফোরণের বিষয়ে তিনি জানান, বেলা ২টা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত ডিউটি ছিল। ডিউটিরত অবস্থায় থাকা গাড়িটিতে বিস্ফোরণ দেখতে পাই। আমার ধারণা কেউ গাড়িটিতে ককটেল মেরেছে। তবে নিশ্চিত করে বলতে পারছি না।

প্রসঙ্গত, রবিবার রাত ৯ টার এ বিস্ফোরণের ঘটনায় বাম পায়ে মারাত্মক আঘাত পান রাশেদা আক্তরা ভাবলী। এসময় তার পাশে থাকা লাল মিয়া নামে একজন রিকশাচালকও আঘাত পান। তার মাথায় জখম হয়। 

এসময় ট্রাফিক সার্জেন্ট এনামুল হক তাদের উদ্ধার করে প্রথমে রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপতালে নিয়ে যান। 

তিনি জানান, রাশেদা ডিউটি করার সময় কে বা কারা ককটেল নিক্ষেপ করলে বিকট শব্দে পার্শ্বে থাকা একটি গাড়িতে আগুন ধরে যায়। পরে আহত দুইজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। দু'জনই সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।


বিডি-প্রতিদিন/বাজিত হোসেন


আপনার মন্তব্য