৮ জুন, ২০২২ ২১:৫৪

টঙ্গীর প্রধান ছিনতাই স্পট এখন নদীবন্দর এলাকা

টঙ্গী প্রতিনিধি

টঙ্গীর প্রধান ছিনতাই স্পট এখন নদীবন্দর এলাকা

অস্ত্রসহ একজনকে আটক করেছে পুলিশ

গাজীপুরের টঙ্গীর বিভিন্ন এলাকায় দিনে কিংবা রাতে প্রতিনিয়ত ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটছে। সেই সাথে বেড়ে উঠেছে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী, বাড়ছে কিশোর গ্যাং। শিল্পজোন টঙ্গীর গুরুত্বপূর্ণ ১৫ থেকে ২০টি স্পটে ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটছে। এর মধ্যে বর্তমানে প্রধান ছিনতাই স্পট হলো মিরেশপাড়া নদীবন্দর এলাকা। গতকাল মঙ্গলবার একজন সন্ত্রাসীকে অস্ত্রসহ আটক করেছে পুলিশ।

রাজাবাড়ি ঘাট দিয়ে তুরাগনদী পার হলেই ছিনতাইয়ের কবলে পড়ে নদী পারাপারের যাত্রীরা। সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসলেই ছিনতাইচক্রের সদস্যরা ওত পেতে থাকে। একপর্যায়ে ধারালো অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে কারো মোবাইল, কারো টাকা কেড়ে নিচ্ছে। পুলিশি ঝামেলার কারণে কেউ থানায় যান না।

এছাড়া টঙ্গী রেল ব্রিজ ও সেতুর নিচে, সান্দার পার, আব্দুল্লাহপুর, নতুন বাজার রেলগেট, আমতলী, ব্যাংকের মাঠ, হোসেন মার্কেট, গাজীপুরা, এরশাদ নগর, হিমানদীঘি, হকের মোড়, মা-টাওয়ার মোড় ও ন্যাশনাল টিউবস মোড়সহ বেশে কিছু চিহিৃত স্পটে ছিনতাইয়ের শিকার হচ্ছে মানুষ।

এ বিষয়ে টঙ্গী নদী বন্দর এলাকার এক ব্যবসায়ী আসাদ বলেন, তুরাগ নদী পার হয়ে এপারে আসলেই ছিনতাইয়ের শিকার হচ্ছে মানুষ। প্রতিদিন ২০-৩০টি ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটছে। মানুষদের আটকে মারধর করে মোবাইল-টাকা লুটে নিচ্ছে। কেউ কিছু বলার নেই। এসব মানুষের কান্না শুনলে হয়তো বুঝবেন!

এ ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা বলছেন, এসব বিষয়ে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

টঙ্গী পশ্চিম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম জানান, গাজীপুরের সাতাশ এলাকা থেকে অস্ত্রসহ সমুন নামে এক সন্ত্রাসীকে আটক করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর