শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ২৩:৩৯

আগ্রহ বাড়ছে শেয়ারবাজারে

এক মাসে নতুন বিও হিসাব ৪৬ হাজার

আলী রিয়াজ

আগ্রহ বাড়ছে শেয়ারবাজারে

কয়েক মাস ধরে চাঙ্গা মেজাজে দেশের দুই শেয়ারবাজার। লেনদেন ও সূচকের সঙ্গে প্রতিদিন বাড়ছে শেয়ারের দর। এমন ইতিবাচক প্রভাবে বিনিয়োগকারীরা সক্রিয় হচ্ছেন শেয়ারে। প্রতিদিন বিভিন্ন ব্রোকারেজ হাউসে সাধারণ বিনিয়োগকারীর উপস্থিতি আগের চেয়ে বেশি লক্ষ্য করা গেছে। শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের আগ্রহ বেড়েছে নতুন বিনিয়োগকারীদেরও। শেয়ারবাজারে বিনিয়োগের জন্য আগস্ট মাসে নতুন ৪৬ হাজার বেনিফিশিয়ারি ওনার্স (বিও) হিসাব খুলেছেন বিনিয়োগকারীরা। ২০১০ সালে ভয়াবহ ধসের পর প্রায় ১০ লাখ বিনিয়োগকারী শেয়ারবাজার ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন। এখন তারা আবার ফিরতে শুরু করেছেন।

সেন্ট্রাল ডিপজিটরি বাংলাদেশ (সিডিবিএল) সূত্রে জানা গেছে, আগস্ট মাসে নতুন বিও হিসাব খুলেছেন ৪৬ হাজার ১৬৯ বিনিয়োগকারী। এর ফলে আগস্ট শেষে মোট বিও হিসাব দাঁড়িয়েছে ২৬ লাখ ৫৯ হাজার ৩০৩টি। জুলাই মাসের শেষ দিন বিও হিসাব ছিল ২৬ লাখ ১৩ হাজার ১৩৪টি। মোট ২৬ লাখ ৫৯ হাজার ৩০৩টি বিও হিসাবের মধ্যে পুরুষ রয়েছেন ১৯ লাখ ৪১ হাজার ১৪২ এবং নারী ৭ লাখ ৬ হাজার ১৮৭ জন। জুলাই মাসে পুরুষ বিও হিসাব ছিল ১৯ লাখ ৯ হাজার ৬টি ও নারী বিও ৬ লাখ ৯২ হাজার ২৫০টি। অর্থাৎ আগস্ট মাসে পুরুষ বিও ৩২ হাজার ১৩৬টি ও নারী বিও বেড়েছে ১৩ হাজার ৯৩৭টি। আগস্ট মাসে কোম্পানি বিনিয়োগকারী বা কোম্পানি বিও ৯৬টি বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১১ হাজার ৯৭৪টিতে। জুলাই মাসের শেষ দিন কোম্পানি বিও ছিল ১১ হাজার ৮৭৮টি। এ সময়ে দেশের বিনিয়োগকারীরা ৪৫ হাজার ৭২টি বিও হিসাব খুলেছেন। যার কারণে আগস্টের শেষ দিন দেশে অবস্থানকারীদের বিও হিসাব দাঁড়িয়েছে ২৪ লাখ ৯১ হাজার ৫৯১টি। জুলাই মাসের শেষ দিন এ সংখ্যা ছিল ২৪ লাখ ৪৬ হাজার ৫১৯টি। আর দেশের বাইরে অবস্থানরতরা আগস্টে ১ হাজার ২০১টি বিও হিসাব খুলেছেন। যার কারণে আগস্টের শেষ দিন বিদেশি বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাব দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৫৫ হাজার ৭৩৮টি। জুলাই মাসের শেষ দিন এ সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৫৪ হাজার ৫৩৭টি।

ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, চলতি বছরের বাজেটের পর তুলনামূলক চাঙ্গা হয়ে ওঠে শেয়ারবাজার। জুলাই ও আগস্টে ডিএসইর লেনদেন হার বেড়ে প্রায় হাজার কোটি টাকায় পৌঁছায়। যা বছরের শুরুতে ছিল ৩০০ কোটি টাকার নিচে। গত আগস্ট মাসে ডিএসই গড় লেনদেন  ছিল ৭০০ কোটি টাকা। এই সময় শেয়ারবাজারে সবগুলো সূচক বেড়েছে। প্রধান সূচক ডিএসইএক্স এক মাসে ৩০০ পয়েন্টের বেশি বেড়ে ৫ হাজার ৬০০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। যা জুলাইয়ের শেষে ছিল ৫ হাজার ২৬২ পয়েন্টে। এ সময় বেড়েছে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ার দরও। জানতে চাইলে শেয়ারবাজার বিশ্লেষক অধ্যাপক আবু আহমেদ বলেন, ব্যাংক আমানতে সুদের হার কম থাকায় অনেকে শেয়ারবাজারে ঝুঁকছেন। এখন বেশির ভাগ ব্যাংকেই আমানত সুদের হার ৬ শতাংশের নিচে। এর প্রভাব শেয়ারবাজারে দেখা যাচ্ছে। এ ছাড়া কিছুদিন ধরেই শেয়ারবাজার তুলনামূলক স্থিতিশীল বলা যায়। এ কারণে অনেকে আগ্রহী হয়ে উঠছেন। তবে বিনিয়োগকারীদের সতর্ক থাকতে হবে। না বুঝে কোনো ধরনের বিনিয়োগ ঝুঁকিতে ফেলতে পারে— পরামর্শ এই বিশ্লেষকের।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর