শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১১ অক্টোবর, ২০১৮ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ অক্টোবর, ২০১৮ ০২:১০

শুরু হয়েছে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা

নিজস্ব প্রতিবেদক

শুরু হয়েছে খালেদা জিয়ার চিকিৎসা

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল ইউনিভার্সিটি (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালের অতিরিক্ত পরিচালক ডা. নাজমুল করিম। গতকাল বিকাল ৫টায় অতিরিক্ত এই পরিচালক বলেন, ‘পাঁচ সদস্যের মেডিকেল বোর্ড বেগম খালেদা জিয়াকে দেখেছে। তাঁর চিকিৎসা দুপুর থেকেই শুরু হয়ে গেছে। তাঁর বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষাও করা হয়েছে।’ এ সময় তাঁর পাশে বিএসএমএমইউর পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আবদুল্লাহ আল হারুন উপস্থিত ছিলেন। এর আগে বিকাল ৪টায়  বেগম খালেদা জিয়াকে দেখার পর তাঁর চিকিৎসায় গঠিত মেডিকেল বোর্ডের প্রেস ব্রিফিং করার কথা থাকলেও তা তারা করেনি। বেলা ২টার দিকে বিএসএমএমইউ উপাচার্য ডা. কনক কান্তি বড়ুয়ার কাছে বেগম জিয়ার চিকিৎসার সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘মেডিকেল বোর্ডের সদস্যদের পরামর্শ অনুসারে বেগম খালেদা জিয়ার চিকিৎসা চলছে।’ এদিকে নিজের বড় ছেলে ও দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ দলীয় নেতৃবৃন্দের সাজার রায় শোনার পর বেগম খালেদা জিয়া কোনো প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন বলে জানা যায়নি।

 বিএসএমএমইউর ৬১২ নম্বর কেবিনে চিকিৎসাধীন কারাবন্দী বেগম খালেদা জিয়া ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায়ের কথা আদৌ শুনেছেন কি না তা হাসপাতালের পরিচালক কিংবা মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা কেউ বলতে পারেননি। রায় ঘোষণার দিন দুপুর পর্যন্ত তিনি বিশ্রামে ছিলেন বলে চিকিৎসকদের ধারণা। এ ছাড়া তাঁর কেবিনে এখনো পর্যন্ত কোনো টেলিভিশন দেওয়া হয়নি। অথচ তিনি যে মানের ডিলাক্স কেবিনে আছেন সেগুলোতে এমনিতে ডিস সংযোগসহ টিভি থাকে। কিন্তু বেগম খালেদা জিয়ার রুমে কোনো টিভি নেই। তাই টিভি দেখে রায় জানারও কোনো সুযোগ তাঁর নেই। ফলে নিরাপত্তারক্ষী, ডাক্তার, নার্স বা অন্য কোনো স্টাফ না বলার আগ পর্যন্ত মামলার রায় কী হয়েছে তা বেগম খালেদা জিয়ার জানার কথা নয় বলে জানিয়েছেন মেডিকেল বোর্ডের একজন সদস্য। আর গতকাল বিকালে যখন মেডিকেল বোর্ডের সদস্যরা তাকে দেখতে যান, তখন শুধু চিকিৎসার বিষয় ছাড়া বেগম জিয়ার সঙ্গে তাঁদের আর কোনো বিষয়ে আলোচনা হয়নি।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর