শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৫ জানুয়ারি, ২০১৯ ২২:৫৬

বিয়ের পাত্র দেখানোর কথা বলে ধর্ষণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

বরিশাল সদর উপজেলার শায়েস্তাবাদ ইউনিয়নের দক্ষিণ পানবাড়ির দরিদ্র পরিবারের এক কিশোরীকে (১৪) বিয়ের পাত্র দেখানোর কথা বলে নিজের ঘরে ডেকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ওমর ফরাজীর (৩৫) বিরুদ্ধে। পরে কিশোরীর পরিবার মামলা করতে চাইলে স্থানীয় প্রভাবশালীরা তাদের মামলা না করতে হুমকি দিচ্ছে। সর্বশেষ গত সোমবার স্থানীয়ভাবে শালিসের মাধ্যমে ধর্ষক ওমরকে ৫০টি জুতাপেটা এবং ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য জসিম খান, চুন্নু হাওলাদার, আবুল খান, শাহজাহান খান,  ওমর সরদার, শফিউদ্দীন হাওলাদারসহ স্থানীয় প্রভাবশালীরা। অভিযুক্ত ওমর ফরাজী একই এলাকার মৃত কাদের ফরাজীর ছেলে এবং তিনি দুটি বিয়ে করেছেন বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। এলাকাবাসী জানান, গত ৮ জানুয়ারি ওমর ওই কিশোরীকে তার বিয়ের জন্য ছেলে দেখেছেন এবং ওই ছেলে তার ঘরে বসা আছে বলে কিশোরীকে নিজ ঘরে ডেকে নেন। পরে ওমর জোরপূর্বক তাকে ধর্ষণ করেন। গত সোমবার বিকালে ধর্ষিতার বাড়িতে শালিস বৈঠক ডাকা হয়। বৈঠকে ওমরের দ্বিতীয় স্ত্রী শিউলী আক্তার স্বামীর বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দেন। এরপর ধর্ষক ওমরকে ৫০টি জুতাপেটা এবং ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন শালিসদাররা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, জুতাপেটা শুরু করার পরই দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করেন ওমর। এরপর লোকজন ধাওয়া করে ওমরকে আটক করে ১০-১২টি জুতাপেটা করে ছেড়ে দেয়। ধর্ষিতার পরিবারের দাবি, ধর্ষক ওমর ও তার পরিবারের লোকজন মামলা না করতে নানা ধরনের হুমকি দিচ্ছে। তারা জীবনের নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর