Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৮ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ মার্চ, ২০১৯ ২৩:৪১

বঙ্গবন্ধু জন্মেছিলেন বলেই আমরা স্বাধীন হয়েছিলাম

----- জয়নুল হক সিকদার

শরীয়তপুর প্রতিনিধি

বঙ্গবন্ধু জন্মেছিলেন বলেই আমরা স্বাধীন হয়েছিলাম
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে গতকাল শরীয়তপুরে আনন্দ র‌্যালি শেষে ৪ হাজার শিক্ষার্থীর মাঝে বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন পারভীন হক সিকদার এমপি -বাংলাদেশ প্রতিদিন

যথাযথ মর্যাদায় নানা কর্মসূচি পালনসহ জাতির জনকের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের মাধ্যমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৯৯তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস পালিত হয়েছে শরীয়তপুরে। গতকাল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন ও শিশু দিবস উপলক্ষে জেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসন ছাড়াও শরীয়তপুরের প্রতিটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে শিশুরা বর্ণাঢ্য আনন্দ র‌্যালি বের করে। জাতির জনক  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় শিশু দিবস উপলক্ষে পারভীন হক সিকদার এমপির নেতৃত্বে এক বিশাল শোভাযাত্রা এবং আনন্দ র‌্যালি শরীয়তপুরের কার্তিকপুরে অনুষ্ঠিত হয়। ১২ নম্বর হোগলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে প্রায় ৪ হাজার স্কুল ছাত্র-ছাত্রী এবং স্থানীয় মানুষের অংশগ্রহণে শোভাযাত্রা ও আনন্দ র‌্যালিটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেড এইচ সিকদার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে এসে শেষ হয়। সেখানে ৪ হাজার স্কুল ছাত্র-ছাত্রীর মাঝে বিনামূল্যে শিক্ষা উপকরণ ও খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন পারভীন হক সিকদার এমপি।  এ সময় পারভীন হক সিকদার এমপি ছাত্র-ছাত্রীদের বঙ্গবন্ধুর আদর্শে দীক্ষিত হয়ে পড়ালেখায় মনোযোগী হওয়ার এবং ভবিষ্যতে জাতি গঠনে অগ্রণী ভূমিকা রাখার ব্যাপারে পরামর্শ দেন। এ সময় তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু শিশুদের খুব আদর করতেন, শিশুদের জন্য তাঁর ছিল গভীর মমত্ববোধ। এজন্যই তাঁর জন্মদিনকে জাতীয় শিশু দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। আজ শিশুদের জন্য বিশেষ দিন, কারণ আজ বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন।’ এরপর বিশ্ববিদ্যালয় মাঠে বঙ্গবন্ধুর ৯৯তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। পারভীন হক সিকদার এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ন্যাশনাল ব্যাংকের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নুল হক সিকদার। বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্যাংকের পরিচালক মনোয়ারা সিকদার। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঘনিষ্ঠ সহচর, বীর মুক্তিযোদ্ধা, ন্যাশনাল ব্যাংকের চেয়ারম্যান জয়নুল হক সিকদার বলেন, বঙ্গবন্ধু জন্মেছিলেন বলেই আমরা স্বাধীন হয়েছিলাম। ইতিহাসের এই মহানায়ক তাঁর জীবন-যৌবন উৎসর্গ করে আন্দোলন-সংগ্রামের মাধ্যমে বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধের ডাক দিয়েছিলেন। তিনি তাঁর জীবনের চেয়েও দেশ ও জনগণকে ভালোবেসে ছিলেন। ইতিহাসের এমন কিংবদন্তি মহানায়ক পৃথিবীতে বার বার আসেন না। বিশ্বনন্দিত এই মহানায়ক আর আসবেন না। তাঁর জীবনী ও কর্ম সবাইকে পাঠ করে, অনুশীলন করে তাঁর কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে হবে। ন্যাশনাল ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ এস এম বুলবুল বলেন, জয়নুল হক সিকদার এতটাই বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ স্বজন ছিলেন যে, জাতির জনককে পরিবার-পরিজনসহ নৃশংসভাবে বিশ্বাসঘাতকরা হত্যা করার পর তিনি শাহাদাতবরণকারীদের কুলখানি ও দোয়া মাহফিল করেছিলেন সেই দুঃসময়ে। অনুষ্ঠানে বক্তারা বাঙালি জাতির জীবনে বঙ্গবন্ধুর অবদানের কথা গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করেন। সেখানে বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে একটি বিশাল কেক কাটা হয়। পরে প্রায় ১০ হাজার মানুষের গণভোজ দিয়ে অনুষ্ঠান শেষ হয়। পরে বিশ^বিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে স্থাপিত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন পারভীন হক সিকদার। এ সময় বিশ^বিদ্যালয়ের শিক্ষক, বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিশু শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন। পরে শিশু দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে শিশুদের বক্তব্যের মধ্য দিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর