শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৮ জুলাই, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ জুলাই, ২০১৯ ২৩:১৮

নুসরাতের মায়ের আক্ষেপ

দুনিয়ায় না হলেও আখেরাতে পাস করবে

ফেনী প্রতিনিধি

দুনিয়ায় না হলেও আখেরাতে পাস করবে

ফেনীর সোনাগাজীতে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করা মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি আলিম পরীক্ষায় অংশ নেওয়া দুটি পরীক্ষায় ‘এ’ গ্রেড পেয়েছেন। ওই দুটি পরীক্ষার পর আর পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেননি নুসরাত। এই বাস্তবতায় কান্নাবিজড়িত নুসরাতের মা শিরিনা আক্তার সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের পরিবারে আজ আনন্দ-উৎসবে ভরে যেত। কিন্তু আমার মেয়ে সব পরীক্ষা দিতে পারেনি। আমার মেয়ে দুনিয়ার পরীক্ষায় পাস করতে না পারলেও আখেরাতের পরীক্ষায় পাস করবে।’ গতকাল প্রকাশিত আলিম পরীক্ষার ফলে দেখা গেছে, কোরআন মাজিদ (বিষয় কোড ২০১) ও হাদিস (বিষয় কোড ২০২) পরীক্ষায় নুসরাত ‘এ’ গ্রেড পেয়েছেন। অন্য পরীক্ষাগুলোতে তাকে অকৃতকার্য দেখানো হয়েছে। এর কারণ তিনি ওই সব পরীক্ষায় অংশ নিতে পারেননি। ৬ এপ্রিল সকালে আরবি প্রথম পত্রের পরীক্ষা দিতে মাদ্রাসায় এসে অধ্যক্ষ সিরাজ উদদৌলার অনুসারীদের আগুনসন্ত্রাসের শিকার হন নুসরাত।

সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা থেকে এ বছর আলিম পরীক্ষায় নুসরাতসহ ১৭৫ শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিয়ে ১৫২ জন পাস করেছেন। অকৃতকার্য হয়েছেন ২৭ জন। এ মাদ্রাসায় এবার পাসের হার ৮৬ দশমিক ৮৬ শতাংশ।

দুপুরে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, আনন্দের মধ্যেও সেখানে ছিল শোকের ছায়া। ফল প্রকাশের পর নুসরাতের সহপাঠী ও স্বজনরা ছিলেন শোকাতুর। মাদ্রাসায় পরীক্ষার ফল জানতে আসা সহপাঠীরা নুসরাতের জন্য কান্নায় ভেঙে পড়েন। এ সময় উপস্থিত শিক্ষকদেরও কাঁদতে দেখা যায়। নুসরাতের দুই বিষয়ে পাস করার খবর পেয়ে মাদ্রাসা আঙিনায় সবার মধ্যে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়।

পরীক্ষার ফল প্রকাশের খবর পাওয়ার পর কান্নায় ভেঙে পড়েন নুসরাতের মা শিরিনা আক্তার। স্বজনরা চেষ্টা করেও  তার কান্না থামাতে পারছিলেন না। শিরিনা আক্তার বলেন, যারা তার মেয়েকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করেছে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি না হওয়া পর্যন্ত তিনি শান্ত হতে পারবেন না।

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর