Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৪ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৪ আগস্ট, ২০১৯ ০০:০৪

বিএনপি তৃণমূলে শক্তি বাড়াচ্ছে

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

বিএনপি তৃণমূলে শক্তি বাড়াচ্ছে

রাজশাহী অঞ্চল বিএনপির দুর্গ হিসেবে পরিচিত ছিল। ২০০৮ সালের নির্বাচনে দুর্গ হারিয়ে গেছে। রাজশাহীর সব আসনেই এখন আধিপত্য আওয়ামী লীগ ও তাদের জোট সঙ্গীদের। ১৯৯১ সালের নির্বাচনে জেলার ৫টি আসনের মধ্যে ৪টি পায় বিএনপি। ১৯৯৬ ও ২০০১ সালের নির্বাচনে ৬টি আসনেই বিজয়ী হন বিএনপির প্রার্থীরা। এরপর থেকে ছন্নছাড়া বিএনপি।

তবে দুর্গ পুনরুদ্ধারে মাঠে শক্তি বাড়াচ্ছে বিএনপি। সাম্প্রতিক সময়ে জেলার সব উপজেলায় দলীয় কর্মসূচিতে দেখা যাচ্ছে জনতার ঢল। বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতারা বলছেন, নেতৃত্বের পরিবর্তন দলকে চাঙা করেছে রাজশাহীতে। সেই সঙ্গে বাধা উপেক্ষা করে নেতারা ছুটছেন তৃণমূলে। ফলে কর্মীরাও সাহস পেয়ে সাংগঠনিক কাজে যুক্ত হচ্ছেন। বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ শাহীন শওকত বলেন, নিজের ভুলত্রুটিগুলো শুধরে তরুণ প্রজন্মকে সামনে রেখে বিএনপি সংগঠিত হচ্ছে। জেলা কমিটিতে নতুন নেতৃত্ব এসেছে। তারা ইউনিয়ন পর্যায়ে দলকে সংগঠিত করতে কাজ করছে।

পূর্ণাঙ্গ কমিটি হলেও আড়াই বছর ধরে নিষ্ক্রিয় ছিলেন জেলা বিএনপির নেতা-কর্মীরা। নাদিমকে সরিয়ে নতুন কমিটি                 গঠন করলেও বিএনপিতে গ্রুপিং বন্ধ হয়নি। উল্টো আগের তুলনায় বেড়েছিল কয়েক গুণ।         হঠাৎই বাতিল করা হয় জেলা বিএনপির কমিটি। আগের কমিটি বাতিল করে গঠন করা হয়েছে আহ্বায়ক কমিটি। এই কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয়েছে নেতা আবু সাঈদ চাঁদকে। এর পরই মূলত তৃণমূলে বদলে যেতে থাকে বিএনপি। আবু সাঈদ চাঁদ দায়িত্ব নিয়েই ছুটছেন ইউনিয়ন পর্যায়ের কর্মীদের কাছে। গত এক মাসে জেলার সব উপজেলাতেই কর্মসূচি পালন করেছেন তিনি। ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতা বাড়ানোর লিফলেটে দাবি করা হয়েছে খালেদা জিয়ার মুক্তি। সেই লিফলেট বিএনপি নেতারা পৌঁছে দিচ্ছেন তৃণমূলের মানুষের কাছে। এভাবে চলছে বিএনপির গণসংযোগ ও নতুন কর্মী সংগ্রহের কাজ। গত এক মাসে জেলার ৯টি উপজেলায় ১০ হাজারের বেশি নতুন কর্মী সংগ্রহের দাবি করছেন বিএনপি নেতারা।

জেলা বিএনপির আহ্বায়ক আবু সাঈদ চাঁদ জানান, দলকে সংগঠিত করতে কেন্দ্র তার ওপর আস্থা রেখেছে। তিনি সেই দায়িত্ব পালন করছেন। সরকারের দমন-পীড়নের কারণে কর্মীরা সাহস হারিয়ে ফেলেছিল। তিনি হারানো সাহস ফিরিয়ে দিতে মাঠে কাজ করছেন।  

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু দাবি করেন, বিএনপি আগের চেয়ে এখন অনেক বেশি শক্তিশালী। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বিএনপি ক্ষমতার বাইরে। তবুও দল ছেড়ে নেতারা চলে যাননি। এই সময়ে বহু তরুণ কর্মী বিএনপির সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। বার্ধক্য আর অসুস্থতার কারণে তাদের কিছু প্রবীণ নেতাকে হারাতে হয়েছে। এই ক্ষতি বিএনপির হয়েছে। তবে সরকার দমন-পীড়ন করে বিএনপির ক্ষতি করতে পারেনি বলে দাবি বিএনপির এই কেন্দ্রীয় নেতার।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর