শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২৩:২৩

প্রেমিকাকে বিয়ে না করে টাকা আদায় করতেই ধর্ষণ

রাবি ছাত্রী ধর্ষণ মামলায় আসামির স্বীকারোক্তি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

প্রেমিকাকে বিয়ে না করে টাকা আদায় করতেই ধর্ষণ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণের মামলায় প্রধান আসামি মাহফুজুর রহমান শারুদ গতকাল আদালতে স্বীকারোক্তি দিয়েছেন। এজন্য তাকে জেলহাজতে পাঠানো হয় বলে জানিয়েছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মতিহার থানার উপপরিদর্শক আবদুর রহমান। এদিকে মামলার আরেক আসামি রাফসানের পরিবার মামলা তুলে নিতে বাদীপক্ষকে হুমকি দিচ্ছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা। ভুক্তভোগীর পরিবারের লোকজনের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, মামলার মূল আসামি শারুদ ও রাফসানের পরিবার মামলা তুলে নিতে নানাভাবে চাপ দিচ্ছে। সেইসঙ্গে বিভিন্ন রকম প্রলোভন দেওয়া হচ্ছে। সর্বশেষ মঙ্গলবার মূল আসামি শারুদের পরিবার ভুক্তভোগীকে ফোনে হুমকি দিয়েছে। এদিকে পুলিশসূত্রে জানা গেছে, আদালতে স্বীকারোক্তিতে শারুদ বলেন, ওই ছাত্রীটি তাকে বিয়ের

জন্য চাপ দিচ্ছেন। কিন্তু তিনি বিয়ে করতে রাজি নন। তাই তাকে (ছাত্রী) দূরে সরিয়ে দিতে ও তার পরিবারের কাছ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা আদায় করতেই ধর্ষণ ও ভিডিও করার পরিকল্পনা করেছিল। ২৪ জানুয়ারি রাবির অর্থনীতি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী শারুদ তার বান্ধবীকে (রাবি ছাত্রী) কাজলা সাঁকোপাড়ার একটি মেসে নিয়ে ধর্ষণ করেন। ৭ ফেব্রুয়ারি তারেক মাহমুদ ও জীবনকে নগরীর কাজলা এলাকা থেকে পুলিশ গ্রেফতার করে। মামলার আরেক আসামি বিশাল পলাতক রয়েছেন বলে জানিয়েছেন মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুদ পারভেজ।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর