শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২৩:১৭

কর বকেয়া ১২ কোটি টাকা, আদায়ে প্রস্তুতি

রাজশাহী সিটি করপোরেশন

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

রাজশাহী সিটি করপোরেশনে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও বাড়ির মালিকদের কাছে বিপুল পরিমাণ পৌরকর বাকি পড়ে আছে। যার পরিমাণ ১২ কোটি ১০ লাখ ১৬ হাজার ১৯৬ টাকা। এ পরিস্থিতিতে বকেয়া হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়ে চিহ্নিত সরকারি প্রতিষ্ঠান ও নগরীর বাড়ির মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে সিটি করপোরেশনের রাজস্ব বিভাগ। এ জন্য একটি তালিকাও করা হয়েছে।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের রাজস্ব বিভাগের তথ্য মতে, হোল্ডিং ট্যাক্স দেয়নি প্রায় ১৯ হাজার গ্রাহক। চলতি অর্থবছরে বাড়ির কর দেয়নি প্রায় এক তৃতীয়াংশ। এ বছর বকেয়া পড়ে আছে ১২ কোটি ১০ লাখ ১৬ হাজার ১৯৬ টাকা। এর মধ্যে ১২১টি সরকারি দফতর কর দেয়নি। তাদের কাছে পাওনা করের পরিমাণ ৮ কোটি ২৫ লাখ ৯৯ হাজার ১৯০ টাকা। আর ব্যক্তিগত পর্যায়ে হোল্ডিং ট্যাক্স বকেয়া আছে ১৮ হাজার ২০২ জনের। তাদের কাছে বকেয়া ট্যাক্স আছে ৩ কোটি ৮৪ লাখ ১৭ হাজার ৬ টাকা। রাজস্ব বিভাগ বলছে, ট্যাক্স না পরিশোধ করা গ্রাহক চিহ্নিত করা হয়েছে। তাদের নোটিশ করা হয়েছে। আগামীতে তাদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। রাজশাহী সিটি করপোরেশনে রাজস্ব কর্মকর্তা আবু সালেহ নূর-ঈ-সাইদ বলেন, ‘আমরা প্রতিটি ওয়ার্ডে ৫০ জন করে ১ হাজার ৫০০ জনকে চিহ্নিত করেছি। এ ছাড়া অনেক প্রতিষ্ঠানকে নোটিশ প্রদান করেছি। বর্তমানে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। এরপরও ট্যাক্স না দিলে তাদের বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটন জানান, নাগরিকরা যাতে পৌরকর পরিশোধ করতে পারেন, সে জন্য ওয়ার্ডগুলোতে অস্থায়ী ক্যাম্প খোলা হয়েছে। তারপরেও অনেকে কর দিতে আসেন না।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর