শিরোনাম
প্রকাশ : শুক্রবার, ১৫ মে, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৪ মে, ২০২০ ২৩:১৬

মার্কেট বন্ধ ঘোষণা দ্বন্দ্বে ব্যবসায়ীরা

খুলনা

সামছুজ্জামান শাহীন, খুলনা

করোনা পরিস্থিতিতে সীমিত পরিসরে শপিং মল ও দোকানপাট খোলার নির্দেশনা থাকলেও খুলনায় শুরু থেকেই মার্কেটগুলোতে রয়েছে উপচেপড়া ভিড়। বিশেষ করে কাপড়ের দোকানগুলোতে নানা বয়সী মানুষের উপস্থিতি প্রথম দিন থেকেই বাড়ছে। তবে কোথাও সামাজিক দূরত্ব স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ না করায় করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দেয়। এ অবস্থায় আজ ভোর ৬টা থেকে জেলা-উপজেলা পর্যায়ের দোকানপাট, শপিং মল ফের বন্ধ রাখার নির্দেশনা দিয়েছে জেলা প্রশাসন। জানা যায়, প্রায় এক মাস বন্ধ থাকার পর গত ১০ মে থেকে কেনাকাটা শুরু হলেও ব্যবসায়ীরা ছিল দ্বিধা-দ্বন্দ্বে। সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত দোকান খুললেও কেনাবেচা না হওয়ার সম্ভাবনা ছিল। তার ওপর কর্মচারীদের বেতন-বোনাস, স্বাস্থ্যবিধির বাড়তি খরচ ও নতুন পণ্যের জোগান না থাকায় ঈদ পর্যন্ত অভিজাত নিউ মার্কেট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় দোকান মালিক সমিতি। কিন্তু ডাকবাংলা মোড়, শপিং কমপ্লেক্স, হার্ডমেটাল গ্যালারি, রেলওয়ে মার্কেট ও ক্লে রোডের দোকানগুলোতে উপচেপড়া ভিড় দেখে সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেন ব্যবসায়ীরা। নিউ মার্কেট দোকান মালিক সমিতির সভাপতি আ. গফ্ফার বিশ্বাস বলেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে মালিক সমিতির সদস্যরা শুরুতে দোকান খুলতে সম্মত ছিলেন না। কিন্তু খুলনার অন্য সব মার্কেট খোলা ও ঈদ উৎসবের কথা চিন্তা করে ১৩ মে থেকে নিউ মার্কেট খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

জানা যায়, মার্কেটগুলোতে করোনা প্রতিরোধে মাস্ক ছাড়া দোকানে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা, কর্মচারীদের স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ, ফুটপাতে অস্থায়ী দোকান না বসানো ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে মাইকিং করার জন্য প্রশাসনের নির্দেশনা থাকলেও তা অনুসরণ করা হয়নি। এতে করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকায় আজ থেকে ফের শপিং মল, দোকানপাট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে এক বিজ্ঞপ্তিতে এ নির্দেশনা জারি করা হয়।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে সীমিত পরিসরে দোকানপাট খোলার সিদ্ধান্ত দেওয়া হলেও মার্কেটগুলোতে উপচেপড়া ভিড় ও স্বাস্থ্যবিধি যথাযথ অনুসরণ করা হয়নি। এতে সংক্রমণের সম্ভাবনা থাকায় পরবর্তী আদেশ না দেওয়া পর্যন্ত জেলা-উপজেলা পর্যায়ের দোকানপাট, শপিং মল বন্ধ রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর