শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২২ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ ডিসেম্বর, ২০২০ ২২:৫০

অবশেষে ধরা খেলেন সেই কাজের বুয়া

২০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও ৫ লাখ টাকা জব্দ

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম

তিনি ছদ্মবেশী কাজের বুয়া। কাজের খোঁজে ঘুরে বেড়ান নগরীর অভিজাত এলাকায়। কাজের সুযোগ পাওয়ার কয়েক দিন পর স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ অর্থ নিয়ে চম্পট দেন। রবিবার রাতে লোহাগাড়া থেকে ছদ্মবেশী চোর কুলসুমকে গ্রেফতার করেছে কোতোয়ালি থানা পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে চুরি করা ২০ ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ প্রায় ৫ লাখ টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। কোতোয়ালি থানার ওসি মোহাম্মদ মহসিন বলেন, ‘গ্রেফতার কুলসুম ছদ্মবেশ ধারণ করে চুরি করে বেড়ান। তিনি দীর্ঘদিন ধরে অভিন্ন কায়দায় চুরি করে আসছেন। কোতোয়ালি থানাধীন ঘাটফরহাদবেগে এক মাস আগে একটি চুরির ঘটনা ঘটে। ওই চুরির সূত্র ধরে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি বলেন, এলাকায় তার পরিবার সম্পদশালী হিসেবেই পরিচিত। দানবীর হিসেবে তাকে চেনেন সবাই।’

জানা যায়, কুলসুম ছদ্মবেশ ধারণ করে অভিজাত এলাকার বুয়ার কাজ নেয়। নিজের পরিচয় লুকাতে ছদ্মনাম এবং অন্যের নামে রেজিস্ট্রেশন করা মোবাইল সিম ব্যবহার করে। নিজের চেহারা আড়াল করতে সব সময় পর্দা করেন। সুযোগ বুঝে অভিন্ন কৌশলে চুরি করে চম্পট দেয়। অভিন্ন কায়দায় গত ৩ নভেম্বর নগরীর ঘাটফরহাদবেগে চুরি করে কুলসুমু। এ সময় ৫০ ভরি সোনা ও নগদ দেড় লাখ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ওসি বলেন, কুলসুম চুরি করে গ্রামে পাকাবাড়ি বানিয়েছেন। এলাকায় তার পরিবার সম্পদশালী হিসেবেই পরিচিত। দানবীর হিসেবে তাকে চেনেন সবাই। তার শহরেও বাড়ি রয়েছে। শহরে চুরির পর গ্রামে পালিয়ে যায়। চুরি করা অর্থ ও সোনা মাটির নিচে পুঁতে রাখেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর