শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১৪ জুন, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৩ জুন, ২০২১ ২৩:৫৭

রাজশাহীতে আগ্রহ বাড়ছে অ্যান্টিজেন পরীক্ষায়

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

Google News

রাজশাহী মহানগরীর বেশ কয়েকটি পয়েন্টে বুথ স্থাপন করে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা শুরু হয়েছে। পরীক্ষায় যাদের করোনা পজিটিভ পাওয়া যাচ্ছে তার বেশির ভাগই উপসর্গহীন। মানুষের মধ্যে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা নিয়ে আগ্রহ, উদাসীনতা দুই-ই দেখা গেছে। জ্বর, সর্দি, কাশিতে ভুগলেও পরীক্ষা করতে চান না অনেকে। কারও শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি রয়েছে কি না তা র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন পরীক্ষার মাধ্যমেও নিশ্চিত হওয়া যায়। সরকার বিনামূল্যে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার ব্যবস্থা করেছে। একটি কিটের সাহায্যে মাত্র কয়েক মিনিটেই পরীক্ষাটি সম্পন্ন করা যায়। স্বাস্থ্য দফতরের তথ্যমতে দেশে ৫১০টি পরীক্ষা কেন্দ্রে করোনা শনাক্তকরণ হচ্ছে। এর মধ্যে ১৩২টি কেন্দ্রে আরটিপিসিআর পদ্ধতিতে পরীক্ষা হচ্ছে। আর যক্ষ্মা শনাক্তে ব্যবহৃত কার্টিজ বেজড নিউক্লিক অ্যাসিড অ্যামপ্লিফিকেশন টেস্ট (সিবি ন্যাট) বা জিন এক্সপার্ট পদ্ধতিতে পরীক্ষা করা হচ্ছে ৪৪টি কেন্দ্রে। ৩৩৪টি স্থানে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা করা হচ্ছে।

গত বছরের ৫ ডিসেম্বর দেশের ১০ জেলায় করোনার অ্যান্টিজেন পরীক্ষা শুরু হয়। এরপর কয়েক ধাপে আরও জেলা ও উপজেলায় অ্যান্টিজেন পরীক্ষা শুরু হয়েছে। পাঁচ দিন ধরে রাজশাহী মহানগরীর বেশ কয়েকটি পয়েন্টে বুথে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা চলছে। প্রথম দুই দিন কাজটি করে সিভিল সার্জন দফতর। তিন দিন ধরে এ দায়িত্ব পালন করছে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগ। তারা নগরীর মোট ১৩টি পয়েন্টে এ পরীক্ষা চালাচ্ছে। বুথের স্বাস্থ্যকর্মীরা জানিয়েছেন, সব শ্রেণির মানুষের মধ্যে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার ব্যাপারে আগ্রহ আছে। আসছেনও অনেকে। পরীক্ষায় যারা পজিটিভ হচ্ছেন তাদের মধ্যে কোনো উপসর্গ নেই। এটা উদ্বেগের। কারণ উপসর্গহীনেরা নিজেদের অজান্তেই করোনা ছড়াচ্ছেন। রাজশাহী মহানগরীর সাহেববাজার জিরো পয়েন্ট বুথে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করছিলেন সিটি করপোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য সুপার মো. তাজুল ইসলাম। তিনি বলেন, এ বুথে বৃহস্পতিবার ১০১ জনের মধ্যে ২৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার ২৩ দশমিক ৭৬ শতাংশ। এদের কারোরই কোনো উপসর্গ ছিল না। তারা নিজের অজান্তেই অন্যদের সংক্রমিত করছেন। রাজশাহী জেলা সিভিল সার্জন কাইয়ুম তালুকদার বলেন, ‘পাঁচ দিন ধরে নগরীতে অ্যান্টিজেন পরীক্ষা চলছে। শনাক্তও হচ্ছে। এদের বেশির ভাগেরই উপসর্গ নেই।

এই বিভাগের আরও খবর