শিরোনাম
প্রকাশ : ৩ জুন, ২০২০ ১৩:০৫
আপডেট : ৩ জুন, ২০২০ ১৩:০৮

চাঁদপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে ৫ জনের মৃত্যু

চাঁদপুর প্রতিনিধি:

চাঁদপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে ৫ জনের মৃত্যু

চাঁদপুরে করোনা উপসর্গ নিয়ে ১২ ঘণ্টায় আইসোলেশন ইউনিট ও বাড়িতে ৫ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। হাসপাতাল ও মৃত ব্যক্তিদের স্বজন ও স্থানীয় তথ্যে জানা গেছে, মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২ টায় সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পল্লী চিকিৎসক আবু তাহের ভুঁইয়া (৬০), রাত ২ টায় সদর উপজেলার কল্যান্দীর আব্দুর রাজ্জাক (৭০) ও বুধবার সকালে একই গ্রামের লাকী বেগম (৩৪) মৃত্যুবরণ করে। 

চাঁদপুর সরকারি জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান, আইসোলেশন ইউনিটে করোনা উপসর্গে মৃত্যুবরণ করেন সদর উপজেলার বাগাদী ইউনিয়নের পশ্চিম বাগাদী গ্রামের আবু তাহের ভূইয়া (৬০)। রাতেই তার মরদেহ বাড়িতে নিয়ে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন সম্পন্ন করা হয়েছে। কল্যানপুর ইউনিয়নের কল্যান্দী গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক (৭০) মঙ্গলবার রাতে এবং একই গ্রামের লাকী বেগম (৩৪) বুধবার সকালে আইসোলেশন ইউনিটে মৃত্যুবরণ করেন। তাদের নমুনা পরীক্ষা এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে দাফন করা হবে।

অপরদিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে মঙ্গলবার রাত ৮টায় হাজীগঞ্জ উপজেলার হাটিলা পূর্ব ইউনিয়নের বলিয়া গ্রামে মজিবুর রহমান (৭০), আজ বুধবার সকাল ৮টায় হাজীগঞ্জ বাজারের ব্যবসায়ী ও একই গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম (৬০) মৃত্যুবরণ করেন।

মৃত মজিবুর রহমানের ছেলে মনির হোসেন বলেন, তার বাবা কয়েকদিন দিন ধরে জ্বর, সর্দি, কাশিসহ নানান রোগে ভুগছিলেন। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে তিনি মারা যান। এলাকার কোনো লোকই সহযোগিতা করেনি বরং সবাই পালিয়ে যায়। পরে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফাজাল হোসেনের সাথে যোগাযোগ করি। তিনি নিজে এসে উপজেলা দাফন কাফন কমিটির সহযোগিতায় আজ বুধবার সকালে দাফন সম্পন্ন করি। ব্যবসায়ী জাহাঙ্গীর আলমকে (৬০) ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলনের টিম সকালে জানাযা ও দাফনের ব্যবস্থা করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আফজাল হোসেন বলেন, হাজীগঞ্জের বলিয়ার মজিবুর রহমানের মৃতদেহ রাতে বাড়িতে পড়ে থাকলেও এলাকার কোনো জনপ্রতিনিধি এগিয়ে আসেনি। ভোরে আমি গিয়ে তাদেরকে ফোন করি তবুও তারা আসেনি। পরবর্তীতে রিপোর্ট করার কথা বললে তারা এগিয়ে আসে। তিনি বলেন, যারা মৃত্যুবরণ করে তাদের দাফনে এগিয়ে আসা সবার সামাজিক কর্তব্য। 

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার


আপনার মন্তব্য