শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১৫:৩০
প্রিন্ট করুন printer

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দেয়া হবে করোনার ১২ হাজার ডোজ টিকা

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি:

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় দেয়া হবে করোনার ১২ হাজার ডোজ টিকা

আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনাভাইরাসের টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানিয়েছেন জেলার সিভিল সার্জন মোহাম্মদ একরাম উল্লাহ। প্রথম পর্যায়ে করোনাযুদ্ধের ফ্রন্টলাইনারদের টিকা দেয়া হবে। বুধবার দুপুরে মুঠোফোনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন তিনি। টিকাদানের জন্য সবধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। চিকিৎসক ও টিকাদানকর্মীদের প্রশিক্ষণও শেষ পর্যায়ে।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, জেলায় এখন পর্যন্ত মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন দুই হাজার ৮০০ জন। এর মধ্যে মারা গেছেন ৪৫ জন। সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই জেলায় সরকারিভাবে টিকাদান শুরু হবে। দুই-তিনদিনের মধ্যেই জেলায় ১২ হাজার ডোজ টিকা এসে পৌঁছাবে। এরপর সেগুলো কোল্ড স্টোরে সংরক্ষণ করা হবে। জেলা সদর হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে টিকা দেয়া হবে।

টিকা প্রদানের জন্য চিকিৎসক ও টিকাদানকর্মীদের প্রশিক্ষণ চলছে। আর টিকাদানের জন্য জেলা সদরে আটটটি ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলোতে দুইটি করে টিম গঠন করা হয়েছে। প্রতিটি টিমে দুইজন করে টিকাদানকর্মী ও চারজন করে স্বেচ্ছাসেবক রয়েছেন।

সিভিল সার্জন মোহম্মদ একরাম উল্লাহ বলেন, টিকাদানের জন্য আমাদের সবধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। টিকা আসার পর সেগুলো সংরক্ষণ করার জন্য সংরক্ষণাগারও প্রস্তুত করা হয়েছে। টিকা গ্রহণের জন্য অনলাইনে নিবন্ধন করতে হবে। নিবন্ধন সম্পন করার পর টিকাগ্রহীতার মুঠোফোনে ক্ষুদেবার্তার মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে, তিনি কবে-কোথায় টিকা গ্রহণ করবেন। আশা করছি এক সপ্তাহের মধ্যেই ফ্রন্টলাইনারদের টিকা প্রদানের মাধ্যমে টিকাদান কর্মক্রম শুরু হবে।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর