শিরোনাম
প্রকাশ : ৫ মার্চ, ২০২১ ১৬:৩০
প্রিন্ট করুন printer

ভারতে করোনায় সংক্রমণ ফের ঊর্ধ্বমুখী

অনলাইন ডেস্ক

ভারতে করোনায় সংক্রমণ ফের ঊর্ধ্বমুখী
ফাইল ছবি

ভারতে করোনা সংক্রমণ গত কয়েকদিনে ফের ঊর্ধ্বমুখী। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ হাজার ৮৩৮ জন। এই সময়ের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে আরও ১১৩ জনের।

নতুন সংক্রমণ ও মৃত্যুর জেরে ভারতে মোট করোনা আক্রান্ত সংখ্যা ও মৃতের সংখ্যারও পরিবর্তন ঘটেছে। এখন অবধি শুরু থেকে দেশে মোট করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ১১ লাখ ৭৩ হাজার ৭৬১ জন। অবশ্য এর মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১ কোটি ৮ লাখ ৩৯ হাজার ৮৯৪ জন। মোট মৃত্যু হয়েছে ১ লাখ ৫৭ হাজার ৫৪৮ জনের। দেশে এই মুহূর্তে অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ১ লাখ ৭৬ হাজার ৩১৯ জনের।

অন্যদিকে, কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে বৃহস্পতিবার নতুন মাইলস্টোন স্পর্শ করেছে দেশ। একদিনে ভ্যাকসিন পেলেন ১০ লাখের বেশি মানুষ। 

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭টা অবধি ভ্যাকসিন পেয়েছেন ১০ লাখ ৯৩ হাজার মানুষ। ১৬ জানুয়ারি থেকে শুক্রবার সকাল ৯টা অবধি দেশে মোট ভ্যাকসিন পেয়েছেন এমন মানুষের সংখ্যা দাঁড়াল ১ কোটি ৮০ লাখ ৫ হাজার ৫০৩ জন।

ভারতে ইতিমধ্যেই শুরু হয়েছে দ্বিতীয় দফায় করোনা ভ্যাকসিন প্রয়োগ। ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কাস থেকে শুরু করে, এবার ৬০ এর বেশি বয়স্ক মানুষ ও ৪৫ বছরের বেশি বয়স এমন কো-মর্বিবিটি যুক্ত মানুষদের ভ্যাকসিন দেয়ার কাজ শুরু হয়েছে চলতি সপ্তাহ থেকেই।

সংক্রমণ রোধে গাইডলাইন জারি করেছে কেন্দ্র। কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত শপিং মলগুলোতে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতেই হবে। যেসব কর্মীরা শপিং মলে কাজ করছেন, তারা দ্রুত সংক্রামিত হতে পারেন। সেই ঝুঁকি রুখতে অতিরিক্ত সতর্কতা জারি করা হয়েছে।

শপিং মল, রেস্তোরাঁ, ধর্মীয় স্থানের জন্য আলাদা আলাদা গাইডলাইন সামনে আনা হয়েছে। রেস্তোরাঁর ভিতরে সামাজিক দূরত্ব মেনে ক্রেতাদের বসার ব্যবস্থা করতে হবে বলে বলা হয়েছে। শপিং মলে এন্ট্রি ও এক্সিট গেট আলাদা হতে হবে। ফেস মাস্ক না পরলে প্রবেশাধিকার মিলবে না ধর্মীয় স্থানে। এছাড়া করোনা বিধি সংক্রান্ত নিয়মাবলী ধর্মীয় স্থানের নানান জায়গায় আটকাতে হবে। বিভিন্ন জায়গায় স্যানিটাইজারের ব্যবস্থা রাখতে হবে।

বিডি প্রতিদিন/আরাফাত


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর