শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ এপ্রিল, ২০২১ ২২:২১
প্রিন্ট করুন printer

কিশোরগঞ্জে আরও ১৯ জনের করোনা শনাক্ত

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি:

কিশোরগঞ্জে আরও ১৯ জনের করোনা শনাক্ত

কিশোরগঞ্জে গত ২৪ ঘণ্টায় (মঙ্গলবার রাত ৭টা পর্যন্ত) ১৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৪ হাজার ৫০৪ জন। 

নতুন আক্রান্তদের মধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ৩ জন, হোসেনপুরে ২ জন, করিমগঞ্জে ২ জন, পাকুন্দিয়ায় ২ জন, কটিয়াদীতে ১ জন, কুলিয়ারচরে ২ জন, ভৈরবে ৬ জন ও বাজিতপুরে ১ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ২ জন, সুস্থ হয়ে ছাড়পত্র পেয়েছেন ১০ জন এবং এ হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি রযেছেন ৬ জন।

সিভিল সার্জন ডা. মুজিবুর রহমান মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে এ তথ্য জানিয়েছেন। গত ২৫ ও ২৬ এপ্রিল শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাব হতে (প্রি আইসোলেশনে ভর্তিকৃত জরুরী রোগীসহ) ১২০ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ১৭ জনের করোনা পজিটিভ পাওয়া গেছে। গত ২৬ এপ্রিল বাজিতপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজের আরটি-পিসিআর ল্যাবে ৯৪ জনের নমুনা পরীক্ষায় কারও করোনা শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া ২৬ এপ্রিল কিশোরগঞ্জ-২৫০ শয্যা জেনারেল হাসাপাতালে ৭ জনের এবং করিমগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৮ জনসহ মোট ১৫ জনের রেপিড এন্টিজেন টেস্টে ২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। 

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩০ জন। করোনা থেকে এ পর্যন্ত জেলায় মোট ৪ হাজার ৬১ জন সুস্থ হয়েছেন। করোনা আক্রান্ত হয়ে জেলায় মৃত্যুবরণ করেছেন মোট ৭৬ জন। 

বর্তমানে জেলায় সর্বেমোট আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৩৬৭ জন। এরমধ্যে কিশোরগঞ্জ সদর উপজেলায় ১৭৩ জন, হোসেনপুরে ১৩ জন, করিমগঞ্জে ১০ জন, তাড়াইলে ৬ জন, পাকুন্দিয়ায় ৩০ জন, কটিয়াদীতে ২৫ জন, কুলিয়ারচরে ১৫ জন, ভৈরবে ৪৭ জন, নিকলীতে ৬ জন, বাজিতপুরে ২৭ জন, ইটনায় ৫ জন, মিঠামইনে ৬ জন ও অষ্টগ্রামে ৪ জন।

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে / আইসোলেশনে রয়েছেন ৩৩৫ জন। আর হাসপাতাল আইসোলেশনে রয়েছেন ৩২ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভ্যাকসিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করেছেন ৭০ জন। ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত রেজিস্ট্রেশন করেছেন ১ লক্ষ ২৭ হাজার ৩৫৭ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দ্বিতীয় ডোজ টিকা নিয়েছেন ১ হাজার ২১৭ জন। গত ৭ ফেব্রুয়ারি থেকে এ পর্যন্ত প্রথম ডোজ টিকা নিয়েছেন ৭৬ হাজার ৬৬৫ জন এবং মোট দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন ৩৩ হাজার ৬৭৯ জন। উল্লেখ্য, ২৫ এপ্রিল থেকে প্রথম ডোজ টিকাদান কার্যক্রম বন্ধ রয়েছে।


বিডি প্রতিদিন/ ওয়াসিফ

এই বিভাগের আরও খবর