শিরোনাম
শনিবার, ৩১ ডিসেম্বর, ২০১৬ ০০:০০ টা

একজনকে বরণ করতে অপেক্ষা

কক্সবাজার প্রতিনিধি

টেকনাফের বাহারছড়া ইউনিয়নের ‘উত্তর শিলখালী’ পিছিয়ে থাকা একটি অজপাড়া গ্রামের নাম। শিক্ষার ছোঁয়া এখনো লাগেনি। হালচাষ, মাছ ধরা কিংবা কায়িক পরিশ্রম করে  চলে এলাকার মানুষের জীবনযাত্রা। ওই এলাকা থেকে আইন বিষয়ে সর্বোচ্চ ডিগ্রি ‘বার অ্যাট ল’ তথা ব্যারিস্টার হওয়া কম কথা নয়। তা-ও সম্ভবত টেকনাফের ইতিহাসে প্রথম। এমন নতুন একটি অধ্যায়ের পাতা খোলে দিলেন আবু শাহেদ আনছারী। যার নামের আগে এখন থেকে ‘ব্যারিস্টার’ যুক্ত হলো।

আবু শাহেদ আনছারী ‘ব্যারিস্টার’ ডিগ্রি নিয়ে নিজ জেলা কক্সবাজারে পা দেন শুক্রবার দুপুরে। তিনি কক্সবাজার বিমানবন্দরে অবতরণের সঙ্গে সঙ্গে শুভার্থী ও বন্ধুমহল তাকে ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন। তাকে স্বাগত জানান টেকনাফ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাওলানা রফিক উদ্দিন, বাহারছড়া ইউপি চেয়ারম্যান মাওলানা আজিজ উদ্দিন, সাংবাদিক নুপা আলম, আমান উল্লাহ আমান প্রমুখ। তাকে স্বাগত জানান টেকনাফ পাইলট উচ্চবিদ্যালয়ের ৯৮ ব্যাচের বন্ধুরাসহ শুভাকাঙ্ক্ষীরা। বিমানবন্দরে বরণের পর বিশাল গাড়িবহরযোগে তাকেসহ নিজ গ্রাম বাহারছড়ার উদ্দেশে রওনা দেয় বন্ধুমহল। আবু শাহেদ আনছারী শিলখালী এলাকার মরহুম মওলানা আবুল কাসেমের ছেলে। ২০০০ সালে চট্টগ্রাম কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আইন বিভাগে ভর্তি হন। ওখান থেকে ২০০৯ সালে স্নাতক ডিগ্রি-এলএলবি (অনার্স) এবং স্নাতকোত্তর (এলএলএম) ডিগ্রি পাস করে আইন পেশায় যোগ দেন। পরবর্তীতে তিনি ইংল্যান্ডের ইউনিভার্সিটি অব নর্থামব্রিয়ায় ভর্তি হন। ২০১০ সালে ওই প্রতিষ্ঠান থেকে তিনি আইনে স্নাতক (এলএলবি অনার্স) ডিগ্রি, ২০১৫ সালে সিটি ইউনিভার্সিটি অব বার্মিংহাম থেকে স্নাতকোত্তর (এলএলএম) ডিগ্রিতে কৃতিত্বের সঙ্গে উত্তীর্ণ হন। ২০১৬ সালে ‘অনারেবল সোসাইটি অব লিংকন্স ইন’ থেকে ‘ব্যারিস্টার অ্যাট ল’ অর্জন করেন।

এই রকম আরও টপিক

সর্বশেষ খবর